রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ০৫:১৫ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে সকল ষড়যন্ত্র রাজপথে মোকাবেলা করতে হবে — যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ ভান্ডারিয়ায় শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ভান্ডারিয়া উপজেলা যুবলীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত ভান্ডারিয়ায় মৎস্যজীবিদের মাঝে জাল ও বকনা বাছুর বিতরণ গ্রাম বাংলার ঐতিহ্য কাচারি ঘর বিলুপ্তির পথে ভান্ডারিয়া উপজেলা নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দীতায় চেয়ারম্যানসহ দুই ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত ভান্ডারিয়ায় পেনশন স্কিম মেলা উদ্বোধন ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে পিরোজপুরে উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন যারা উপজেলা নির্বাচনকে কেন্দ্র করেইন্দুরকানীতে শেখ রাসেল স্মৃতি পাঠাগারে আগুন জেপি’র চেয়ারম্যান প্রার্থী মাহিবুল হোসেনের মনোনয়নপত্র বাতিল পিরোজপুরে যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামি ঢাকায় গ্রেফতার ভান্ডারিয়ায় ককটেল ফাটিয়ে, কুপিয়ে ব্যবসায়ীর টাকা ছিনতাই ভান্ডারিয়া উপজেলা নির্বাচনে তিন পদে ৬ প্রার্থীর মনোনয়ন দাখিল কাউখালীতে গাজার গাছ সহ যুবক গ্রেফতার ভান্ডারিয়ার অটো চালক কাওসারের লাশ কাঠালিয়ায় উদ্ধার কাউখালীতে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় মিশুক ড্রাইভার নিহত ভান্ডারিয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মিরাজুল ইসলামের মনোনয়নপত্র দাখিল ভান্ডারিয়ায় স্কাউট ভবন নির্মাণের ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধন ভান্ডারিয়ায় পিকআপ চাপায় বৃদ্ধের মৃত্যু ভান্ডারিয়ার চরখালী ফেরীতে বাসের ধাক্কায় অল্পেরর জন্য রক্ষা পেল অর্ধশত যাত্রীসহ বাস ॥ ৪ টি মোটর সাইকেল নদীতে॥ বাস চালক আটক
গুলিবিদ্ধ পা নিয়ে চিকিৎসার জন্য কাতড়াচ্ছেন হাফেজ রফিক

গুলিবিদ্ধ পা নিয়ে চিকিৎসার জন্য কাতড়াচ্ছেন হাফেজ রফিক

হাসপাতালের বেডে হাফেজ রফিকুল ইসলাম। ছবি: সাইমুম সাদীর ফেসবুক পোস্ট থেকে

টাকার অভাবে তুলোর পরিবর্তে তোষকের তুলো দিয়ে পায়ের পুজ মুছছেন হাফেজ রফিকুল ইসলাম।

অকেজো পা নিয়ে রাজধানীর মোহাম্মদপুরে একটি হাসপাতালের বেডে কাতড়াচ্ছেন তিনি।

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, আক্রান্ত পা কেটে কৃত্রিম পা সংযোজন করতে হবে তার।

কিন্তু টাকার অভাবে চিকিৎসার খরচ চালোনো তো দূরের কথা পরিবারের খাবারের যোগান দেয়ার সামর্থ নেই এই হাফেজের।

হাফেজ রফিকুল ইসলামের করুণ অবস্থা স্বচক্ষে দেখে তার প্রতি সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিতে আহ্বান জানিয়ে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন সাইমুম সাদী নামের এক ব্যক্তি।

সাইমুম সাদীর সেই ফেসবুক স্ট্যাটাসটি হুবহু দেয়া হলো-

‘কথা বলতে গিয়ে বারবার চোখের পানি মুছছিলেন হাত দিয়ে। হৃদয়বিদারক কাহিনী শুনে আমরাও আবেগাপ্লুত হলাম।

এই মানুষটির নাম হাফেজ রফিকুল ইসলাম। ইসলামবিদ্বেষী ব্লগারদের শাস্তির দাবীতে ঝিনাইদহ থেকে এসেছিলেন শাপলায় হেফাজতের ডাকে। কিন্তু সেই কালো রাতে তিনি আহত হন মারাত্মকভাবে।

রাত তিনটের দিকে শাপলা চত্বরে গুলিবিদ্ধ হন হাফেজ রফিকুল ইসলাম। জামেয়া রাহমানিয়া ও লালবাগের কয়েকজন ছাত্র তাকে পৌঁছে দেন ইসলামি ব্যাংক হাসপাতালে। হাসপাতাল থেকে বের হয়ে যখন বাড়িতে গেলেন তখন তার পায়ে যন্ত্রণা খুব বেশি।

তারপরের কাহিনী খুবই বেদনাদায়ক। এই গবিব ইমাম সাহেবের চাকরি চলে যায় যেহেতু তিনি আহত। দুই মেয়ে এবং মা-বাবা ও স্ত্রীর সংসারে তিনিই ছিলেন একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি। কোনো উপার্জন নেই। কিভাবে এতগুলো মানুষের মুখের খাবাব জোগাড় করবেন আর কিভাবে নিজের চিকিৎসার খরচ যোগাবেন দিশেহারা হয়ে পড়েন।

খুব স্বাভাবিক কারণে দিনের পর দিন উপোস থাকতে শুরু করে এই ফ্যামিলি। হাফেজ রফিক চিকিৎসার জন্য গুলিবিদ্ধ পা টেনে টেনে কখনো ঢাকা আবার কখনো হাটহাজারী মাদ্রাসা কখনো অন্যান্য জায়গায় ঘুরতে থাকেন। যার সঙ্গেই কথা হয় সামান্য টাকা হাতে ধরিয়ে দিয়ে চলে যায়। কিন্তু স্থায়ীভাবে চিকিৎসার জন্য যে পরিমাণ টাকার দরকার তা জমা হয় না।

কয়েকদিন আগে হাফেজি হুজুর সেবা সংস্থার চেয়ারম্যান মাওলানা রজীবুল হক ওই অঞ্চলে সফরে গিয়ে জানতে পারলেন একজন হাফেজে কুরআন আহত হয়ে বিছানায় পড়ে আছেন। তিনি দেখলেন, তার পা পচে গেছে এবং টাকার অভাবে মেডিসিন তুলোর পরিবর্তে তোষকের তুলা দিয়ে পুজ মুছছেন এই ভাই। তিনি তাৎক্ষণিক কিছু সাহায্য দিয়ে আসলেন।

কিন্তু স্থায়ী চিকিৎসা অর্থের অভাবে করতে পারেননি এই হাফেজ সাহেব। সর্বশেষ ডাক্তার জানাল, পা পচে গেছে বেশিরভাগ। পা কেটে ফেলতে না পারলে শরীরেও পচন শুরু হতে পারে। বাধ্য হয়ে তাই চলে এলেন ঢাকায়।

মোহাম্মদপুরে একটি হাসপাতালে তাকে দেখতে গিয়েছিলাম। জড়িয়ে ধরে হাউমাউ করে কাদলেন কিছুক্ষণ। খোঁজ নিয়ে জানলাম, পা কাটা এবং নতুন কৃত্রিম পা সংযোজন করতে অনেক টাকার প্রয়োজন। কিন্তু এই মজলুম হাফেজে কুরআনের সেই সামর্থ্য নেই।

আপনাদের কাছে শেয়ার করি সুখ দুঃখ। এই অসহায় হাফেজে কুরআনের জন্য যদি আমরা সবাই কিছু করি তাহলে একটা মানুষ এবং একটা ফ্যামিলির মুখে হাসি ফুটবে। ’

স্ট্যাটাসের শেষে হাফেজ রফিকুল ইসলামকে সাহায্যার্থে তার ফোন ও বিকাশ নম্বর দেন সাইমুম সাদী। নম্বরটি হলো – 01861736578

 

সুত্র যুগান্তর

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 pirojpursomoy.com
Design By Rana
error: Content is protected !!