সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ০৩:২১ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
রাষ্ট্রীয় সম্মান নিয়ে কাউখালীর বীর মুক্তিযোদ্ধা হাবিবুর রহমানের শেষ বিদায় কাউখালীতে ব্রীজ নির্মান কাজ ৫ বছরে শেষ না হওয়ায় জনগনের ভোগান্তি চরমে কাউখালীতে জাতীয় স্থানীয় সরকার দিবস উপলক্ষে শোভাযাত্রা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র উন্নত ও স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ে তোলার একটি অংশ–মহিউদ্দিন মহারাজ (এমপি) মায়ের লাশ বাড়িতে রেখে এসএসসি পরীক্ষার হলে দুই ভাই ভান্ডারিয়ায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত বীর মুক্তিযোদ্ধা শাহাবুদ্দিন শাহ বাবুল মারা গেছেন পিরোজপুরে প্রতারণা মামলায় এহ্সান গ্রুপের অফিস সহকারী নাজমুল গ্রেফতার কাউখালীতে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু কাউখালীতে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে সম্ভাব্য প্রার্থীদের ব্যাপক প্রচারনা ভান্ডারিয়া বিহারী লাল মিত্র পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া নাজিরপুরে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় ২ শিক্ষার্থী নিহত কাউখালীতে উপজেলা প্রশাসন অনাবাদি জমি আবাদে আনার উদ্যোগ গ্রহণ করেছে কাউখালীতে অবৈধ জাল দিয়ে মাছ ধরার অপরাধে জেলেকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত কাউখালীতে অগ্নিকাণ্ডে বসতবাড়ি পুড়ে ছাই হয়ে গেছে সংসদে ইমাম-মুয়াজ্জিনের সম্মানজনক ভাতা দাবি মহিউদ্দীন মহারাজের যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটি সদস্য হয়েছে মহিউদ্দীন মহারাজ পিরোজপুরে উজ্জ্বল হত্যার মামলার প্রধান আসামি গ্রেপ্তার পিস্তল ঠেকিয়ে শিক্ষককে হাতুরিপেটার অভিযোগ বেবী মালেঙ্গা খ্যাত কাউখালীর ক্রিকেটার সোহাগের স্বপ্ন ছাই হয়ে যাবে অর্থাভাবে
স্বরূপকাঠিতে অপহরণ না আত্মগোপন

স্বরূপকাঠিতে অপহরণ না আত্মগোপন

স্বরূপকাঠিতে অপহরণ না আত্মগোপন

সুমন খান নিজস্ব প্রতিনিধ
পিরোজপুরের নেছারাবাদ স্বরূপকাঠিতে,
ইবনে সিনা ফার্মাসিউটিক্যালস লিঃ এর স্বরূপকাঠির ( পশ্চিম পাড়) এম আর কুষ্টিয়ার মোঃ আব্দুল্লাহ গত ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ ইং তাং সন্ধ্যা ৬টা হইতে নিখোঁজ ,এই সংবাদ প্রথম প্রকাশিত হয় স্বরূপকাঠি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার ফেইজবুক আইডি থেকে। পরবর্তীতে তার পরিবার সূত্রে ঘটনাটি নিশ্চিত করা হয়। তার পরিবার বলেন সে নিখোঁজ হওয়ার পর গত ০১-০১-২০২০ইং তারিখ নেছারাবাদ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়। থানায় যোগাযোগ করলে ডায়েরির সত্যতা পাওয়া যায় ডায়েরি নং। গত ৫-০১-২০২০ইং তারিখ আব্দুল্লার স্ত্রীর সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন তাদের নিকট কেহ মুক্তিপণ দাবি করে ফোন করেনি, সেখানে উপস্থিত আব্দুল্লাহর বোন বলেন এই এলাকায় তার ভাই দেইনা আছে যার কারনেও তিনি এলাকা থেকে চলে যেতে পারে বলে তিনি জানান। তার স্ত্রী সাবিনা আরো বলেন সে স্থানীয় এক ব্যবসায়ীর নিকট নগদ ১৫ পনের লক্ষ টাকা গ্রহন করে এবং তার সাথে ঔষধ ব্যবসা সাথে জড়িত থাকেন না,তাঁদের একটি ব্যবসায়ীক চুক্তিনামায় আমার স্বাক্ষর রয়েছে বলে জানান। পরবর্তীতে জানা যায় আব্দুল্লাহ অতি সুকৌশলে ইন্দেরহাট বন্দরের অনেক ব্যবসায়ীদের নিকট থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়ে আত্মগোপনে চলে যায়। বলেন এলাকার লোকজন আব্দুল্লাহর কোম্পানির এরিয়া ম্যানেজার বলেন সে ২০০৮ সালে এই ধরনের ঘটনা আরেকবার ঘটিয়ে ছিল এবংইবনে সিনা কোম্পানির অফিসে যোগাযোগ করলে তারা বলেন আমাদের কাছেও তার কাছে টাকা পাওনা আছে, কয়েকদিন পর ফিরে এসে কোম্পানি ও এলাকার টাকা পরিশোধ করেন।
এলাকার সাধারণ মানুষের সাথে যোগাযোগ করলে তাঁরা বলেন এই ঘটনাটি একটি সাজানো নাটক। আব্দুল্লাহ কোথায় আছে তা তার স্ত্রী জানেন।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 pirojpursomoy.com
Design By Rana