মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ১১:৫১ অপরাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
বজ্রপাতে স্কুল ছাত্রের মৃত্যু ভান্ডারিয়া পৌরসভা পরিস্কার পরিচ্ছন্ন বিষয়ক মতবিনিময় সভা নির্বাচনি এলাকার খাজনা মওকুফের ঘোষণা দিলেন মহিউদ্দিন মহারাজ কাউখালীতে কীটনাশক পান করে কৃষকের আত্মহত্যা কাউখালীতে অল্পের জন্য প্রাণে রক্ষা পেল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কোয়ার্টারে থাকা একটি পরিবারের ৪ জন সদস্য ভান্ডারিয়ায় পাসপোর্ট নিয়ে ফেরা হলো না ঘরে, সড়ক দুর্ঘটনায় কলেজ ছাত্রের মৃত্যু বুয়েট নিয়ে সাবেক কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নেতা শাফায়েত হোসেন অভির কিছু কথোপকথন বীর মুক্তিযোদ্ধারা হলেন জাতীর শ্রেষ্ঠ সন্তান -মহিউদ্দিন মহারাজ এমপি কাউখালীতে বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপন কাউখালীতে মৎস্য সুফলভোগী জেলেদের মাঝে বকনা বাছুর বিতরন ভান্ডারিয়ায় বিহারী লালমিত্র পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের স্কাউটদের দীক্ষা অনুষ্ঠান ভান্ডারিয়ায় পিকআপে করে গরু চুরির সময় ৩ চোর আটক কাউখালী উপজেলা পরিসংখ্যান কার্যালয়ে জনবল সংকট থাকার কারণে জনগণ কাঙ্ক্ষিত সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে পিরোজপুরে স্ত্রী হত্যা মামলায় যাবজ্জীবন সাজা প্রাপ্ত স্বামী ১৪ বছর পর গ্রেপ্তার পিরোজপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় আবারো ৩ জন নিহত পিরোজপুরের এক জেলের জালে ধরা পড়ল ২০ লাখ টাকার লাক্ষা মাছ কাউখালীতে বঙ্গবন্ধুর ১০৪ তম জন্মদিবস ও জাতীয় শিশু দিবস পালিত ভান্ডারিয়ায় জাতীয় দুর্যোগ প্রস্তুতি দিবস পালিত পিরোজপুরে বাস অটোরিকশা ও মোটরসাইকেলের ত্রিমুখী সংঘর্ষে ৭ জন নিহত কাউখালীতে বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্যে দিয়ে ঐতিহাসিক ৭ ই মার্চ উদযাপিত
শিরোপা এবার রাজশাহীর

শিরোপা এবার রাজশাহীর

বঙ্গবন্ধু বিপিএলের ফাইনালে খুলনা টাইগার্সকে ২১ রানে হারিয়ে শিরোপা জিতল রাজশাহী রয়ালস। বিপিএলের সপ্তম আসরের ফাইনলে প্রথমে ব্যাট করে ২০ ওভারে ৪ উইকেটে ১৭০ রান তুলে রাজশাহী। জবাবে ২০ ওভারে ৮ উইকেটে ১৪৯ রান করে খুলনা। রাজশাহীর এই জয়ে বিপিএল পেল নতুন চ্যাম্পিয়ন।

জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নেমে এদিন শুরুতেই বিপর্যয়ে পড়ে খুলনা। রানের খাতা খোলার আগেই ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফিরেন ওপেনার নাজমুল হাসান শান্ত। এরপর বেশিক্ষণ টিকে থাকতে পারেনি আরেক ওপেনার মেহেদি হাসান। ৪ বল খেলে নামে পাশে ২ রান তুলে তিনিও ফিরেন সাজঘরে।

তবে খুলনার এমন হালে মাঠে তখন হাল ধরেন শামসুর রহমান ও রুশো। রুশো ২৬ বলে ৩৭ রান তুলে ক্যাচ আউট হন। দলীয় ১০১ রানের মাথায় আউট হন শামসুর রহমান। ততক্ষণে তিনি ৪৩ বলে করেন ৫২ রান। এরপর নজিবুল্লাহও ৪ রান যোগ করে সাজঘরে ফিরেন।

এরপর খুলনা দলের অধিনায়ক মুশফিকুর রহমান দলকে ক্ষণিক জয়ের আশা দেখালেও আন্দ্রে রাসেলের বলে বোল্ড হলে তা ধূসর হয়ে যায়। তবে দলটি শেষমেশ ২০ ওভার শেষে ৮ উইকেটে ১৪৯ রান তুলে।

খুলনার হয়ে কামরুল হাসান, আন্দ্রে রাসেল ও মোহাম্মদ ইরফান ২ টি করে উইকেট তুলে নেন।

এর আগে টস জিতে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেন খুলনা টাইগার্সের অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। রাজধানীর মিরপুর স্টেডিয়ামে সন্ধ্যা ৭টায় ম্যাচটি শুরু হয়।

ব্যাট করতে নেমে ভালো শুরুর ইঙ্গিত দিয়েও ইনিংস বড় করতে পারেননি আফিফ হোসেন। মোহাম্মদ আমিরের শর্ট বল পুল করতে গিয়ে দলীয় ১৪ রানে মেহেদী হাসান মিরাজের দুর্দান্ত এক ক্যাচে ফেরেন তিনি (১০)। উইকেটে থিতু হয়েও পারলেন না লিটন দাস। তাকে ফিরিয়ে দ্বিতীয় উইকেট জুটি ভেঙেছেন শহিদুল ইসলাম। লিটন ২৮ বলে ২৫ রান করেন।

ফ্রাইলিঙ্কের হাফ ভলি বল কভার ড্রাইভ করেছিলেন শোয়েব মালিক। ব্যাট-বলে টাইমিংও হয়েছিল ঠিকঠাক। কিন্তু গ্যাপ বের করতে পারেননি। ১৩ বলে ৯ রানে ক্যাচ দিয়ে ফিরেছেন মালিক। তার আউটের সময় রাজশাহীর রান ৩ উইকেটে ৯৪। ৩০ বলে দারুণ ফিফটি করেছিলেন ইরফান শুক্কুর। কিন্তু ৩৫ বলে ৬ চার ও ২ ছক্কায় ৫২ রান করে ফাইন লেগে ক্যাচ দেন তিনি। তখন রাজশাহীর সংগ্রহ ৪ উইকেটে ৯৯।

এর পর আন্দ্রে রাসেল ও মোহাম্মদ নওয়াজ খুলনার বোলারদের উপর চড়াও হন। তারা অবিচ্ছিন্ন দলীয় সংগ্রহকে ১৭০ রানে নিয়ে যান। রাসেল ১৬ বলে ২৭ ও নওয়াজ ২০ বলে ৪১ রান করে অপরাজিত থাকেন। খুলনার হয়ে মোহম্মদ আমির ২ উইকেট নেন।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 pirojpursomoy.com
Design By Rana