শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ০৭:২৩ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
রাষ্ট্রীয় সম্মান নিয়ে কাউখালীর বীর মুক্তিযোদ্ধা হাবিবুর রহমানের শেষ বিদায় কাউখালীতে ব্রীজ নির্মান কাজ ৫ বছরে শেষ না হওয়ায় জনগনের ভোগান্তি চরমে কাউখালীতে জাতীয় স্থানীয় সরকার দিবস উপলক্ষে শোভাযাত্রা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র উন্নত ও স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ে তোলার একটি অংশ–মহিউদ্দিন মহারাজ (এমপি) মায়ের লাশ বাড়িতে রেখে এসএসসি পরীক্ষার হলে দুই ভাই ভান্ডারিয়ায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত বীর মুক্তিযোদ্ধা শাহাবুদ্দিন শাহ বাবুল মারা গেছেন পিরোজপুরে প্রতারণা মামলায় এহ্সান গ্রুপের অফিস সহকারী নাজমুল গ্রেফতার কাউখালীতে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু কাউখালীতে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে সম্ভাব্য প্রার্থীদের ব্যাপক প্রচারনা ভান্ডারিয়া বিহারী লাল মিত্র পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া নাজিরপুরে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় ২ শিক্ষার্থী নিহত কাউখালীতে উপজেলা প্রশাসন অনাবাদি জমি আবাদে আনার উদ্যোগ গ্রহণ করেছে কাউখালীতে অবৈধ জাল দিয়ে মাছ ধরার অপরাধে জেলেকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত কাউখালীতে অগ্নিকাণ্ডে বসতবাড়ি পুড়ে ছাই হয়ে গেছে সংসদে ইমাম-মুয়াজ্জিনের সম্মানজনক ভাতা দাবি মহিউদ্দীন মহারাজের যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটি সদস্য হয়েছে মহিউদ্দীন মহারাজ পিরোজপুরে উজ্জ্বল হত্যার মামলার প্রধান আসামি গ্রেপ্তার পিস্তল ঠেকিয়ে শিক্ষককে হাতুরিপেটার অভিযোগ বেবী মালেঙ্গা খ্যাত কাউখালীর ক্রিকেটার সোহাগের স্বপ্ন ছাই হয়ে যাবে অর্থাভাবে
২০০ টাকায় রোগী দেখেন অষ্টম শ্রেণি পাশ বিশেষজ্ঞ!

২০০ টাকায় রোগী দেখেন অষ্টম শ্রেণি পাশ বিশেষজ্ঞ!

সাতক্ষীরা সদরের ঝাউডাঙ্গা বাজার থেকে ভুয়া চক্ষু বিশেষজ্ঞ আব্দুল মালেককে আটক করেছে পুলিশ। ফার্মেসির নামে একটি চেম্বার খুলে জনপ্রতি ২০০ টাকা করে নিয়ে রোগী দেখেন তিনি।

বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে তাকে আটক করা হয়। আটক ভুয়া চক্ষু বিশেষজ্ঞ আব্দুল মালেক (৫৫) শহরের মধুমল্লারডাঙ্গী এলাকার বাসিন্দা।

ঝাউডাঙ্গা এলাকার স্থানীয়রা জানান, গত এক বছর ধরে ঝাউডাঙ্গা বাজারে ঝাউডাঙ্গা ফার্মেসি নামে একটি চেম্বার খুলে রোগী দেখা শুরু করেন আব্দুল মালেক। চিকিৎসা ফি নেন দুইশ’ টাকা। গত একমাস আগে মাইকিং করে চক্ষু বিশেষজ্ঞ হিসেবে পরিচয় দিয়ে রোগীদের আহ্বান করে।

বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে গ্রামবাসী একত্রিত হয়ে চেম্বারে গিয়ে তার কাগজপত্র দেখতে চায়। এ সময় আব্দুল মালেক চিকিৎসার কোন কাগজপত্র দেখাতে পারেনি। তিনি অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত লেখাপড়া করেছে বলে স্বীকার করেন। তারপর ভারতে গিয়ে আয়ুর্বেদিক একটা সার্টিফিকেট করেছেন বলে জানায় আব্দুল মালেক। তবে তারও কোন কাগজপত্র দেখাতে পারেনি। পরে সদর থানার এসআই মানিক তাকে থানায় নিয়ে যায়।

এসআই মানিক বলেন, আব্দুল মালেক ভারতে লেখাপড়া করেছে বলে জানিয়েছে। আয়ুর্বেদিক চিকিৎসার ভারতীয় একটি সার্টিফিকেট রয়েছে তার। সেটিও সঠিক কিনা যাচাই করা হয়নি। পরবর্তীতে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ বিষয়ে সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, এ বিষয়ে বিস্তারিত পরে জানানো হবে।

 

 

 

সুত্র দৈনিক মতবাদ

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 pirojpursomoy.com
Design By Rana