রবিবার, ১৪ অগাস্ট ২০২২, ০৩:২৩ অপরাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
শোক দিবস পালনে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অনুদান দিলেন মিরাজুল ইসলাম কোন সরকার বঙ্গবন্ধুর হত্যার বিচারের দায়িত্ব নেয়নি-মহিউদ্দিন মহারাজ ইন্দুরকানীতে নদীর চর থেকে অজ্ঞাত যুবকের অর্ধ গলিত মরদেহ উদ্ধার ইন্দুরকানীতে থ্যালাসেমিয়ায় আক্রান্ত শিশু সুমাইয়ার পাশে দাঁড়ালো চন্ডিপুর ইউনিয়ন মানবিক কল্যান পরিষদ নাজিরপুরে ভাইয়ের পরিবারকে মিথ্যা মামলা দেয়ার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছে ভুক্তভূগী মঠবাড়িয়ায় শিক্ষকদের সাথে বিভাগীয় কমিশনারের মতবিনিময় সভা সৎ মেয়েকে নিয়ে পালানো যুবক গ্রেপ্তার, প্রকাশ্যে ফাঁসির দাবি স্ত্রীর কাউখালীতে পাইপগানসহ দুইজন গ্রেফতার মঠবাড়িয়ায় পরকিয়ার জেরে বিউটিশিয়ান নারী খুন : ঘাতক স্বামী ও স্কুল শিক্ষিকা গ্রেপ্তার সংকট মোকাবিলায় এলএনজি আমদানিই ভরসা: প্রধানমন্ত্রীর জ্বালানি উপদেষ্টা হেলিকপ্টার দুর্ঘটনা : চলেই গেলেন র‍্যাব কর্মকর্তা ইসমাইল ভান্ডারিয়া থেকে ছেড়ে যাওয়া মনিংসান লঞ্চের ধাক্কায় বাল্কহেড ডুবে ২ শ্রমিক নিখোঁজ ভান্ডারিয়ায় বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের জন্মবার্ষিকী পালিত কৃষি কর্মকর্তা কর্তৃক সাংবাদিক হেনস্তার প্রতিবাদে চট্টগ্রামে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ কাউখালীতে ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক কমিটি গঠন কাউখালীতে সংসারের হাল ধরতে বাবার পেশা খেয়া ঘাটের মাঝি হলেন স্কুল ছাত্রী মুনিরা ভান্ডারিয়ায় টাস্কফোর্স কমিটির মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত ভান্ডারিয়ায় ওয়ার্ল্ড ভিশনের দুর্যোগ সামগ্রী বিতরণ ভান্ডারিয়ায় ফুটপাতের অবৈধ দখলমুক্ত করতে উচ্ছেদ অভিযান ভান্ডারিয়ায় বজ্রপাতে কৃষকের ৪ মহিষের মৃত্যু
বাকৃবির আবাসিক হলে হাতের নাগালেই মিলছে ইয়াবা

বাকৃবির আবাসিক হলে হাতের নাগালেই মিলছে ইয়াবা

বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (বাকৃবি) সম্প্রতি মাদকের অভয়ারণ্যে পরিণত হয়েছে। ছাত্রদের আবাসিক নয়টি হলে প্রতিরাতেই বসছে মাদকের আসর। বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন স্থানে মাদকদ্রব্য সরবরাহ করে বহিরাগত এজেন্টরা। দাম কম ও সহজলভ্য হওয়ার হাতের নাগালেই মিলছে গাঁজা, মদ আর ইয়াবা। মাদক হাতে পেয়ে নেশায় মেতে থাকছেন মাদকসেবী শিক্ষার্থী ও কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। সম্প্রীতি মাদকের সাথে সম্পৃক্ততার কারণে বেশ কিছু শিক্ষার্থী, কর্মচারী ও বহিরাগত এজেন্টকে আটক করেছে পুলিশ। তবে অভিযাগ রয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলোয় প্রকাশ্য মাদকের আসর বসলেও কার্যকরী কোনো পদক্ষেপ নিচ্ছে না হল প্রশাসন।অনুসন্ধানে জানা গেছে, ক্যাম্পাসের পাশের বিভিন্ন জায়গায় বাসা ভাড়া করে তৎপরতা চালাচ্ছে মাদক ব্যবসায়ীরা। এসব জায়গায় মাদক সেবন করছে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ও কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। এছাড়াও বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশে শেষ মোড়, ফসিলের মোড়, হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী হলের পিছনে, বিএফআরআই এলাকা, পাগলা বাজার, ব্রহ্মপুত্র নদের পাড়, কেওয়াটখালী ও ময়মনসিংহ শহরের বিভিন্ন এজেন্টের মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়ে মাদক প্রবেশ করে। এভাবেই বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদের নয়টি হলে ঢুকছে মাদকদ্রব্য। হলের ছাদ, নির্দিষ্ট কক্ষ, ক্যাম্পাসের পাশে ব্রহ্মপুত্র নদের পাড়, কর্মচারীদের ব্যাচেলর কোয়ার্টার, খামারসহ বিভিন্ন স্থানে বসে এ আসর।জানা গেছে, বিশ্ববিদ্যালয়ের শাহজালাল হলের ৩০৮ নম্বর কক্ষে প্রায়ই মাদকের আসর বসে। বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ডেপুটি ট্রেজারার (বাজেট) প্রায়ই মাদক সেবন করতে ওই কক্ষে যান বলে অভিযোগ রয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কার্যালয়ে প্রতিনিয়তই জুয়া ও মাদকের আসর বসে। এছাড়াও হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী হল, শহীদ জামাল হোসেন হল, ফজলুল হক হল, শহীদ নাজমুল আহসান হল, শহীদ শামসুল হক হল, আশরাফুল হক হল, ঈশা খাঁ হল এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব হলে প্রায় প্রতিদিন বিভিন্ন কক্ষে গাঁজা ও ইয়াবার আসর বসে। তবে সপ্তাহের ছুটির দিনে এটি আরোও জমে ওঠে। অনেক সময় বহিরাগতদের নিয়েও বসে মাদকের আসর। বিভিন্ন সময়ে অভিযোগ করলেও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন কোনো কার্যকরী পদক্ষেপ নেয়নি বলে জানা গেছে। মাদকাসক্ত এসব শিক্ষার্থী রাতভর নেশা করার কারণে ঠিকভাবে ক্লাস-পরীক্ষায় অংশ নিতে পারছেন না। ফলে একই লেভেলে বারবার থাকতে হচ্ছে।নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কর্মকর্তা জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের জুয়া ও মাদকের আসর দিনদিন প্রকট হচ্ছে। মাদকের বিষয়টি আসলে সবারই জানা। তবুও প্রশাসনের কোনো কার্যকরী পদক্ষেপ নেই।এ বিষয়ে বাকৃবি প্রক্টর অধ্যাপক ড. মো. আজহারুল হক বলেন, মাদকের বিষয়ে এক বিন্দুও ছাড় দেওয়া হবে না। মাদক ঠেকাতে আমাদের চেষ্টা অব্যাহত আছে। আর মাদক নির্মূল করতে সকলের সহযোগিতা দরকার।

 

 

সুত্র 24ghontanews.com

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন










© All rights reserved © 2019 pirojpursomoy.com
Design By Rana