সোমবার, ০৮ অগাস্ট ২০২২, ০৪:২০ অপরাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
ভান্ডারিয়ায় বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের জন্মবার্ষিকী পালিত কৃষি কর্মকর্তা কর্তৃক সাংবাদিক হেনস্তার প্রতিবাদে চট্টগ্রামে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ কাউখালীতে ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক কমিটি গঠন কাউখালীতে সংসারের হাল ধরতে বাবার পেশা খেয়া ঘাটের মাঝি হলেন স্কুল ছাত্রী মুনিরা ভান্ডারিয়ায় টাস্কফোর্স কমিটির মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত ভান্ডারিয়ায় ওয়ার্ল্ড ভিশনের দুর্যোগ সামগ্রী বিতরণ ভান্ডারিয়ায় ফুটপাতের অবৈধ দখলমুক্ত করতে উচ্ছেদ অভিযান ভান্ডারিয়ায় বজ্রপাতে কৃষকের ৪ মহিষের মৃত্যু ভান্ডারিয়ায় মুক্তিযোদ্ধাদের অনশন চার ঘন্টা পর প্রত্যাহার ভান্ডারিয়ায় দুই সন্তানের জননীকে ধর্ষনের চেষ্টা॥ লম্পটের আংশিক লিঙ্গ কর্তন কারারক্ষী পদে চাকুরীর প্রলোভন অর্থ আদায় ভান্ডারিয়ায় প্রতারক চক্রের দুই সদস্য গ্রেপ্তার ভান্ডারিয়ায় পাওনা টাকা চাওয়ায় দোকানীকে গরম পানি দিয়ে ঝলসে দেওয়া অভিযোগ (ভিডিও) ভান্ডারিয়ায় পাওয়ার গ্রিডে আগুন ৫ উপজেলায় বিদ্যুৎ সরবরাহ ৪ ঘন্টা বন্ধ কাউখালীতে এনজিও ঋনে সাধারণ মানুষ জর্জরিত মঠবাড়িয়ায় জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে প্রশিক্ষণ ও উপকরন বিতরণ কাউখালীতে মাঠ পর্যায়ে কৃষকদের সাথে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত সার্ক জার্নালিষ্ট ফোরাম বাংলাদেশ চাপ্টার এর কমিটি ঘোষণা ইন্দুরকানীতে সাঈদীর মামলার রাষ্ট্রপক্ষের সাক্ষীর মৃত্যু পিরোজপুরে জাল টাকা ব্যবসায়ীর ১৪ বছরের কারাদন্ডাদেশ ভান্ডারিয়ায় মাদ্রাসা ছাত্রী ধর্ষণ মামলার আসামী র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার
করোনা ভাইরাস ছড়ানোয় ক্ষমা চাইলেন গির্জা প্রধান

করোনা ভাইরাস ছড়ানোয় ক্ষমা চাইলেন গির্জা প্রধান

ক্ষমা চাচ্ছেন লি ম্যান-হি। ছবি: বিবিসি

দক্ষিণ কোরিয়ায় করোনা ভাইরাস আতঙ্ক প্রকট আকার ধারণ করছে। এরই মধ্যে দেশটিতে করোনা ভাইরাস ছড়ানোর জন্য এক ধর্মীয় সম্প্রদায়ের প্রধানকে দায়ী করা হচ্ছে।

শিনচিওঞ্জি নামে ক্ষুদ্র ওই খ্রিষ্টান সম্প্রদায়ের নেতা হলেন লি ম্যান-হি। এক সংবাদ সম্মেলনে হাঁটু গেড়ে বিনয়ের সঙ্গে ক্ষমা চেয়েছেন শিনচিওঞ্জি গির্জার এই প্রধান।

সোমবার বিবিসি অনলাইনের প্রতিবেদনে একথা জানানো হয়।

লি ম্যান-হির দাবি, তিনি যিশু খ্রিস্টের দ্বিতীয় অবতার। বাইবেলে উল্লিখিত ‘প্রতিশ্রুতিযুক্ত যাজক’ হিসেবে নিজেকে পরিচয় দেন। তিনি এক লাখ ৪৪ হাজার মানুষকে না কি তার সঙ্গে স্বর্গে নিয়ে যাবেন।

৮৮ বছর বয়সী এই নেতা বলেন, ‘এটা কোনো উদ্দেশ্যমূলক ছিল না। তারপরেও মানুষ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। আমরা যথাসাধ্য চেষ্টা করেছি এটাকে বাধা দিতে, কিন্তু ব্যর্থ হয়েছি।’

প্রতিবেদনে বলা হয়, চীনের উহান শহর থেকে করোনা ভাইরাসের উৎপত্তি হয়। তেমনি দক্ষিণ কোরিয়ার দুই শহর- দেগু এবং চোংডোকে ভাইরাস ছড়ানোর সূত্র হিসেবে দেখা হচ্ছে।

আর এতে সন্দেহের তীর গিয়ে পড়ে ঐ অঞ্চলের খ্রিষ্টান সম্প্রদায়ের দিকে। বলা হচ্ছে, দেগু এবং চোংডোতে এই ধর্মীয় গোষ্ঠীর কয়েকশ সদস্যের শরীরে করোনার উপসর্গ পাওয়া যায়। তারপরেও তারা দেশজুড়ে ভ্রমণ করেছে।

এই গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে অভিযোগ, করোনা ভাইরাসে আক্রান্তরা তাদের নাম গোপন করেছে। ফলে ভাইরাস নিয়ন্ত্রণ কঠিন হয়ে পড়ে।

দক্ষিণ কোরিয়ার সরকারি কর্মকর্তারা বলছেন, আক্রান্তদের অধিকাংশই শিনচিওঞ্জি সম্প্রদায়ের অনুসারী। চোংডো শহরের হাসপাতালে এদের রোগীই বেশি দেখা গেছে।

তবে গির্জার মুখপাত্র কিম শিন-চ্যাং বিবিসিকে বলেছেন, তারা দেশের কর্তৃপক্ষকে গোষ্ঠীর সদস্য, শিক্ষার্থী এবং বাড়ির একটি তালিকা দিয়েছিলেন।

তিনি বলেন, ‘আমাদের সদস্যদের সুরক্ষার কারণে আমরা এই তথ্য প্রকাশ করতে উদ্বিগ্ন ছিলাম।’

দক্ষিণ কোরিয়ায় চার হাজারেরও বেশি মানুষ করোনা ভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়েছেন। যার মধ্যে প্রায় ৬০ শতাংশ ওই গির্জার সদস্য।

এছাড়া সোমবার দেশটিতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন আরও ৪৭৬ জন। এতে আক্রান্তের সংখ্যা মোট চার হাজার ২১২ জনে দাঁড়িয়েছে। এছাড়া মৃত্যু হয়েছে ২৬ জনের।

সুত্র ইত্তেফাক

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন










© All rights reserved © 2019 pirojpursomoy.com
Design By Rana