শুক্রবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ১১:১৫ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
ভান্ডারিয়ায় সুন্দরবন কুরিয়ার এন্ড পার্সেল সার্ভিসের উদ্বোধন ছিনতাই হওয়া গাড়ি ভান্ডারিয়া থেকে উদ্ধার তিন মামলায় গোল্ডেন মনির ফের ৯ দিনের রিমান্ডে ‘বাংলাদেশে ইসলাম ধর্মের জন্য সবচেয়ে বেশি কাজ করেছেন বঙ্গবন্ধু’ করোনায় আরো ৩৫ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২৩৩৬ বাসে অগ্নিসংযোগ: বিএনপির ৬৫ নেতাকর্মীর জামিন বহাল ইতিহাস আর ঐতিহ্যের সাক্ষী শেরপুরের ‘মাইসাহেবা’ মসজিদ আন্দোলনের নামে অশান্তি সৃষ্টি করলে কঠোর ব্যবস্থা: ওবায়দুল কাদের বুকের রক্ত দিয়ে হলেও বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য স্থাপন হবেই: ড. আওলাদ সেরা অভিনেতা তারিক আনাম, সেরা অভিনেত্রী সুনেরা; ন’ডড়াই সেরা চলচ্চিত্র পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী জাফরুল্লাহ খান জামালির মৃত্যু বগুড়ায় পুলিশ পরিচয়ে টাকা ছিনতাই, ৬ বছর পর আসামি গ্রেপ্তার আমিরাতে হামলার হুমকি দিল ইরান এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে ধর্ষণ: মামলার অভিযোগপত্র দাখিল আজ ভান্ডারিয়ায় ৬ষ্ঠদিনে হেলথ এসিস্ট্যান্ট এসোসিয়েশনের কর্মবিরতি বিএনপির রাজনীতি ফেসবুক ও ভিডিও কলে সীমাবদ্ধ : ওবায়দুল কাদের মুক্তি পাচ্ছেন ইয়েমেনে বিদ্রোহীদের হাতে বন্দী ৫ বাংলাদেশি ২ লাখ ৮০ হাজার ইয়াবাসহ মিয়ানমারের ৭ নাগরিক আটক করোনায় আক্রান্ত এমপি এমিলি ভারতে নতুন করে সাড়ে ৩৬ হাজার করোনা রোগী শনাক্ত



জাপানের তৈরি ওষুধে চারদিনেই সারবে করোনা

জাপানের তৈরি ওষুধে চারদিনেই সারবে করোনা

করোনায় আক্রান্ত রোগীকে চিকিৎসাসেবা দেয়া হচ্ছে (ছবি: সংগৃহীত)



করোনাভাইরাসের চিকিৎসায় জাপানে তৈরি একটি ইনফ্লুয়েঞ্জা ওষুধ পুরোপুরি কার্যকর প্রমাণিত হয়েছে বলে দাবি করেছে চীন। জাপানের ফুজিফিল্ম হোল্ডিংস করপোরেশনের সহায়ক প্রতিষ্ঠানের তৈরি ফাভিপিরাভির (favipiravir) নামের ওষুধটির ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে কার্যকর ফল পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছেন চীনের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী ঝ্যাং শিনমিন।

সম্প্রতি ওষুধটি উহান ও শেনঝেন অঞ্চলের অন্তত ৩৪০ জন করোনা আক্রান্ত রোগীর শরীরে প্রয়োগ করা হয়। মঙ্গলবার এর ফলাফল প্রসঙ্গে শিনমিন বলেন, এটি খুবই নিরাপদ ও চিকিৎসায় পুরোপুরি কার্যকর হয়েছে।

জাপানের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম এনএইচকে জানিয়েছে, শেনঝেন অঞ্চলে যেসব রোগীকে ফাভিপিরাভির দেয়া হয়েছিল তারা মাত্র চারদিনের মধ্যেই করোনামুক্ত হয়েছেন। বিপরীতে, অন্য ওষুধ ব্যবহারকারীদের সুস্থ হতে সময় লেগেছে প্রায় ১১ দিন।

এক্স-রেতেও দেখা গেছে, ফাভিপিরাভির ব্যবহারকারীদের মধ্যে ৯১ শতাংশের ফুসফুসের অবস্থার উন্নতি হয়েছে। অন্য ওষুধ ব্যবহারকারীদের ক্ষেত্রে এর হার ৬২ শতাংশ।

চীনের মতো জাপানেও করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের মধ্যে স্বল্প ও মাঝারি মাত্রায় উপসর্গ দেখা দেয়া রোগীদের চিকিৎসায় ফাভিপিরাভির ব্যবহার করা হচ্ছে। তবে জাপানি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সূত্র বলছে, এই ওষুধ গুরুতর উপসর্গ সম্পন্ন রোগীদের চিকিৎসায় খুব একটা কার্যকর হয়নি।

গত ৩১ ডিসেম্বর চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরেই প্রথম এই ভাইরাসের উপস্থিতি ধরা পড়ে। এখন পর্যন্ত এটি বিশ্বের অন্তত ১৬৫ দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে। চীনের হুবেই প্রদেশের উহানের একটি সামুদ্রিক খাবারের বাজার থেকে এই ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব শুরু হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

বৈশ্বিক এ মহামারিতে এ পর্যন্ত দুই লাখ ৮ হাজার ৩৮৩ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এতে মৃত্যুবরণ করেছেন ৮ হাজার ৬৯৪ জন। যার বেশিরভাগই চীনের। এর পরেই ইতালির অবস্থান।

সূত্র: দ্য গার্ডিয়ান

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন










© All rights reserved © 2019 pirojpursomoy.com
Design By Rana