শুক্রবার, ৩০ Jul ২০২১, ০৯:৫৫ অপরাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
১ আগস্ট থেকে শিল্প-কারখানা খোলা আশুগঞ্জে ৩৪ কেজি গাঁজা উদ্বার। পিকআপ সহ আটক-১ মঠবাড়িয়ায় পানিবন্দী মানু‌ষের মাঝে নগদ অর্থ ও শুকনো খাবার বিতরণ মঠবাড়িয়ায় ১২শত হেক্টর পাঁকা আউশ ক্ষেত ও ৪শত ২০ হেক্টর আমন বীজতলা পানির নিচে মঠবাড়িয়ায় বন্যার পানিতে ও বিদ্যুতের ছেড়া তারে ২জনের মৃত্যু মঠবাড়িয়ায় চাঞ্চল্যকর ট্রিপল মার্ডার : পলাতক ২ আসামি এক বছরেও গ্রেপ্তার না হওয়ায় ক্ষোভ ঝালকাঠিতে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে প্রেসক্লাব সেক্রেটারির নামে মামলা কাউখালীতে লকডাউন অমান্য করে বিয়ে জরিমানা করোনা টিকা নেয়ার সর্বনিম্ন বয়স ২৫ নির্ধারণ মঠবাড়িয়ায় করোনার দ্বিতীয় ধাপে ১৯৯০ জনের টিকা গ্রহণ মঠবাড়িয়ায় ভারী বর্ষণে নিঞ্চল প্লাবিত, জন জীবন বিপর্যস্ত করোনার কাছে হেরে গেলেন ঝালকাঠির বিচারক সানিয়া ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় করোনা পরীক্ষা করতে এসে একজনের মৃত্যু আশুগঞ্জে মাদক কারবারীর ছুরিকাঘাতে আহত -২ (ভিডিও) নবীনগরে নৌকা নিয়ে গান বাজিয়ে নাচানাচি করার দায়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত কর্তৃক জরিমানা রাজাপুরের সাতুরিয়ায় জমিজমা সংক্রন্ত বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত ২ সজিবওয়াজেদ জয়েরজন্মদিনে উপজেলাযুবলীগের বৃক্ষরোপণ ও দোয়া মোনাজাত ইন্দুরকানীতে স্বেচ্ছাসেবক লীগের ২৭ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত মঠবাড়িয়া সরকারি কলেজের অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে অপপ্রচারের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন এহসাম হাওলাদারের জন্মদিন উপলক্ষে ছাত্রলীগের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ
খাবার দেয়ার কথা বলে দিনমজুরের মেয়েকে ধর্ষণ করলো ইউপি সদস্য

খাবার দেয়ার কথা বলে দিনমজুরের মেয়েকে ধর্ষণ করলো ইউপি সদস্য

বরগুনার তালতলীতে করোনা ভাইরাসের কারনে বেকার হয়ে খাদ্য সংঙ্কটে পড়ে একটি দিনমজুর পরিবার। খাদ্য সহায়তা দেওয়ার নাম তালিকাভুক্তি করার জন্য স্থানীয় ইউপি সদস্য আনোয়ার খান দিনমজুর সোবাহানের মেয়েকে তার বাড়িতে ডেকে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া যায়।

ভুক্তভোগি পরিবার সূত্রে জানা যায়, উপজেলার শারিকখালী ইউনিয়ের পূর্ব বাদুরগাছা এলাকার করোনা ভাইরাসের কারনে দিনমজুর সোবাহান কোনো কাজকর্ম না করতে পেরে বেকার হয়ে পড়ে তার পরিবারটি। এতে তারা খাদ্য সংঙ্কটে পড়ে। বিষয়েটি স্থানীয় ইউপি সদস্যকে গত ৬ এপ্রিল সোমবার জানালে তিনি তাদের নাম সরকারী সহায়তার তালিকাভুক্ত করার জন্য ইউপি সদস্য ও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ার খানের কাছে যায় সোবাহান। তিনি সেই সময় তার মেয়েকে ভোটার আইডি কার্ড নিয়ে আসতে বলেন।

পরেদিন ৭ এপ্রিল মঙ্গালবার বিকেল ৫টার দিকে ঐ দিনমজুর সোবাহানের বিবাহিত মেয়ে ইউপি সদস্যর বাড়িতে গেলে এই সুযোগে তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেন। এ সময় ঐ মেয়ের স্বামী ইসরাফিল ইউপি সদস্যর বাড়িতে গিয়ে ঘটনাটি দেখে ফেলে। এই ঘটনা কাউকে বললে খুন করার হুমকি দেওয়া হয়।পরে বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হলে ভুক্তভোগি দিনমজুর পরিবারকে থানায় মামলা করলে এলাকা ছাড়ার হুমকি দেওয়া হয়। পরের দিন স্বামীকে তুলে নিয়ে যায় ইউপি সদস্য। আজ ৮ এপ্রিল বুধবার পর্যন্ত স্বামী ইসরাফিলের কোনো খোজখবর পাওয়া যায়নি আর ঐ দিনমজুর পরিবারটিকে অবরুদ্ধ করে রেখেছেন বলেন জানান তারা। এদিকে ইউপি সদস্যর এমন কর্মকাণ্ডে হতবাক এলাকাবাসী। বিচারের দাবি করেন স্থানীয় সচেতন মহল।

অভিযুক্ত আনোয়ার খান তালতলী উপজেলার শারিকখালী ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের সদস্য ও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি।

মেয়ের বাবা সোবাহান বলেন, আমি দিনমজুরের কাজ করি। এই করোনা ভাইরাসের কারনে আমি অসহায় দিনযাপন করছি। এর ভিতরে আমার মেয়ে তার স্বামী ইসরাফিল কে নিয়ে বেড়াতে আসেন বাড়িতে। এর ভিতরে আমার সংসার চালাতে খুব কষ্ট হয়। স্থানীয় মেম্বার আনোয়ার খানের কাছে গেলে সে আমার মেয়েকে তার ভোটার আইডি কার্ড নিয়ে তার বাড়িতে যেতে বলেন। পরে বিকেলের দিকে তার বাড়িতে আমার মেয়ে গেলে বাড়িতে কেউ না থাকায় জোরপূর্বক ধর্ষণ করেন। এই ঘটনায় মামলা করলে এলাকা ছাড়ার হুমকি দেন তিনি।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত ইউপি সদস্য আনোয়ার খান বলেন,আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অপবাদ দিচ্ছে। এগুলো সব মিথ্যা। এই মেয়ে যাকে স্বামী হিসেবে পরিচয় দেয় সে আসল স্বামী না। তাকে তুলে আনা হয়নি বরং ছেলের পরিবারের কাছে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।

ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি আবুল বাশার বাদশা তালুকদার বলেন,নিউজ করার দরকার নেই আপনাদের সাথে যোগাযোগ করা হবে।

তালতলী থানার অফিসার্স ইনচার্জ(ওসি) কামরুজ্জামান মিয়া বলেন, এবিষয়ে আমি কিছু জানি না। তবে খোজখবর নিয়ে দেখছি এখনি। আর অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তালতলী উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) সেলিম মিঞা বলেন, খাদ্য সহায়তা দেওয়ার কথা বলে ধর্ষণ বিষয়টি খুব দুঃখজনক। বিষয়টি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন










© All rights reserved © 2019 pirojpursomoy.com
Design By Rana