রবিবার, ১৪ অগাস্ট ২০২২, ০৩:৫২ অপরাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
কাউখালীতে জোয়ারের পানিতে ২৫ গ্রাম প্লাবিত শোক দিবস পালনে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অনুদান দিলেন মিরাজুল ইসলাম কোন সরকার বঙ্গবন্ধুর হত্যার বিচারের দায়িত্ব নেয়নি-মহিউদ্দিন মহারাজ ইন্দুরকানীতে নদীর চর থেকে অজ্ঞাত যুবকের অর্ধ গলিত মরদেহ উদ্ধার ইন্দুরকানীতে থ্যালাসেমিয়ায় আক্রান্ত শিশু সুমাইয়ার পাশে দাঁড়ালো চন্ডিপুর ইউনিয়ন মানবিক কল্যান পরিষদ নাজিরপুরে ভাইয়ের পরিবারকে মিথ্যা মামলা দেয়ার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছে ভুক্তভূগী মঠবাড়িয়ায় শিক্ষকদের সাথে বিভাগীয় কমিশনারের মতবিনিময় সভা সৎ মেয়েকে নিয়ে পালানো যুবক গ্রেপ্তার, প্রকাশ্যে ফাঁসির দাবি স্ত্রীর কাউখালীতে পাইপগানসহ দুইজন গ্রেফতার মঠবাড়িয়ায় পরকিয়ার জেরে বিউটিশিয়ান নারী খুন : ঘাতক স্বামী ও স্কুল শিক্ষিকা গ্রেপ্তার সংকট মোকাবিলায় এলএনজি আমদানিই ভরসা: প্রধানমন্ত্রীর জ্বালানি উপদেষ্টা হেলিকপ্টার দুর্ঘটনা : চলেই গেলেন র‍্যাব কর্মকর্তা ইসমাইল ভান্ডারিয়া থেকে ছেড়ে যাওয়া মনিংসান লঞ্চের ধাক্কায় বাল্কহেড ডুবে ২ শ্রমিক নিখোঁজ ভান্ডারিয়ায় বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের জন্মবার্ষিকী পালিত কৃষি কর্মকর্তা কর্তৃক সাংবাদিক হেনস্তার প্রতিবাদে চট্টগ্রামে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ কাউখালীতে ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক কমিটি গঠন কাউখালীতে সংসারের হাল ধরতে বাবার পেশা খেয়া ঘাটের মাঝি হলেন স্কুল ছাত্রী মুনিরা ভান্ডারিয়ায় টাস্কফোর্স কমিটির মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত ভান্ডারিয়ায় ওয়ার্ল্ড ভিশনের দুর্যোগ সামগ্রী বিতরণ ভান্ডারিয়ায় ফুটপাতের অবৈধ দখলমুক্ত করতে উচ্ছেদ অভিযান
নার্সকে যৌন হয়রানির অভিযোগে চিকিৎসক গ্রেফতার

নার্সকে যৌন হয়রানির অভিযোগে চিকিৎসক গ্রেফতার

পটুয়াখালীর বাউফলে চাকরি হারানোর ভয় দেখিয়ে এক স্টাফ নার্সকে (৩২) যৌন হয়রানির অভিযোগে মোঃ শাহ আলম (৬৫) নামের এক চিকিৎসককে গ্রেফতার ক‌রে‌ছে বাউফল থানা পু‌লিশ। গ্রেফতারকৃত শাহ আলম বাউফল হেলথ কেয়ার ডায়াগনষ্টিক সেন্টার অ্যান্ড ক্লিনিকের অ্যানেস্থেশিয়া বিভাগের চিকিৎসক। তিনি একসময় বাউফল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা হিসাবে চাকরি করতেন।

জানা গেছে, ডাঃ শাহ আলম বাউফল হেলথ কেয়ার ডায়াগনষ্টিক সেন্টার অ্যান্ড ক্লিনিকে কর্মরত অবস্থায় চাকরি হারা‌নোর ভয় দে‌খি‌য়ে এক স্টাফ নার্সকে যৌন হয়রানি করে আসছিলেন। সম্প্রতি তিনি ওই স্টাফ নার্সকে তার ইচ্ছের বিরুদ্ধে আপত্তিকর কাজ করতে বাধ্য করেন। একপর্যায়ে অতিষ্ঠ হয়ে ওই স্টাফ নার্স সোমবার রাতে ডাঃ শাহ আলম ও বাউফল হেলথ কেয়ার ডায়াগনষ্টিক সেন্টার অ্যান্ড ক্লিনিকে পরিচালকসহ তিনজনকে আসামি করে বাউফল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। এরপর ওই রাতেই বাউফল সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মোঃ ফারুক হোসেনের নেতৃত্বে তাকে গ্রেফতারের জন্য অভিযান চালানো হয়। কিন্তু তিনি বাসার দরজা না খোলায় তাকে সেদিন গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি। এরপর সারারাত পুলিশ তার বাসা ঘেরাও করে পরের দিন মঙ্গলবার দুপুর ১টার দিকে তাকে গ্রেফতার করে।

বাউফল থানার ওসি মোস্তাফিজুর রহমান জানান, ওই চিকিৎসককে গ্রেফতার করে পটুয়াখালী আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

জানা যায়, ডাঃ শাহ আলম এপর্যন্ত যত উপজেলায় চাকরি করেছেন সেখানেই নারী কেলেঙ্কারির সাথে জড়িয়ে পড়েন। তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় অভিযোগ থাকায় অবসরের পরেও এখন পর্যন্ত পেনশন সুবিধা ভোগ করতে পারেননি।

বাউফল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের একটি সূত্র জানায়, ডাঃ শাহ আলমের অ্যানেস্থেশিয়া সনদটি জাল। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে ৬ মাসের কোর্স শেষ করে এ সনদ গ্রহণ করা হয়। কিন্তু তার সনদটি পাঁচ মাস কোর্সের। এ ধরণের সনদ দেশের কোন মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে দেয়া হয়না। তিনি এই জাল সনদ দিয়ে বাউফলে দুইটি ক্লিনিকে প্রায় শতাধিক প্রসূতি মাকে অ্যানেস্থেশিয়া দিয়েছেন।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন










© All rights reserved © 2019 pirojpursomoy.com
Design By Rana