মঙ্গলবার, ১৬ Jul ২০২৪, ০২:২১ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
কাউখালীতে ৪০ পিস ইয়াবাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক কাউখালীতে কৃষকদের মাঝে ফলের চারা বিতরণ বালু বোঝাই বাল্ক‌হেডের ধাক্কায় ব্রিজ ভে‌ঙে খা‌লে এক বছরেও পুণ:নির্মাণ হয়নি নাজিরপুরে যে কারনে মাকে কুপিয়ে হত্যা করলো ছেলে ৯ বছরের সাজার জন্য ৩৫ বছর পালিয়েও শেষ রক্ষা হলো না স্কুল ছাত্রী অপহরণের ৩৩ দিন হলেও এখন পর্যন্ত উদ্ধার করা যায়নি কাউখালীতে ৪টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ইসলাম শিক্ষার ক্লাস নিচ্ছেন হিন্দু শিক্ষক পিরোজপুরে বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস উপলক্ষে বিশেষ সেবা কার্যক্রম উদ্বোধন কাউখালী সরকারি বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের কক্ষে দেখা গেল সাপ কাউখালী উপজেলা অস্থায়ী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেই চিকিৎসক নেই বেড, রোগীদের দুর্ভোগ চরমে কাউখালীতে ঘূর্ণিঝড় রিমালে ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে হাইজিন কিট বিতরন পিরোজপুরে দুঃস্থ ও অসহায় পরিবারের মাঝে ঢেউটিন ও নগদ অথের্র চেক বিতরণ কাউখালীতে জমি জমা নিয়ে সংঘর্ষে আহত ৪, গ্রেপ্তার ৪ নেছারাবাদে রিমালে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ব্র্যাকের মানবিক সহায়তা প্রদান সরকার আপনাদের পাশে আছে, আমরা আপনাদের খোঁজখবর নিচ্ছি- জেলা প্রশাসক জাহেদুর রহমান কাউখালীতে প্রান্তিক চাষীদের মাঝে সার, বীজ ও নারকেল চারা বিতরণ ভাণ্ডারিয়ায় পিকআপের ধাক্কায় ২ পথচারী নিহত, আহত ৪ সকলে মিলে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করলে এলাকার শতভাগ উন্নয়ন করা সম্ভব- মহিউদ্দিন মহারাজ এমপি ভান্ডারিয়ায় বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল অনুষ্ঠিত মঠবাড়িয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী বায়জিদ
১৩ ঘণ্টার জলপরি সুমন ‘নৌ পুলিশের বাবুর্চি’

১৩ ঘণ্টার জলপরি সুমন ‘নৌ পুলিশের বাবুর্চি’

ঢাকার বুড়িগঙ্গায় মনিং বার্ড লঞ্চ ডুবির ১৩ ঘণ্টাপর জীবিত উদ্ধার হওয়া সুমন ব্যাপারী সদরঘাট নৌ থানার পুলিশের একজন বাবুর্চি। দাবি টার্মিনালের একাধিক ভ্রাম্যমাণ হকারদের। হকাররা বৃহস্পতিবার এ তথ্য নিশ্চিত করছে। তাদের অভিযোগ বিআইডাব্লিউটিএর যুগ্ম পরিচারক একেএম আরিফ উদ্দিন ও নৌ থানার ওসি রেজাউল করিম ভূঁইয়ার এটা সাজানো নাটক।

সুমন নিজেকে একজন ফল ব্যবসায়ী দাবি করলেও তিনি গত দুই বছর ধরে সদরঘাট ‘নৌ থানা পুলিশের একজন বাবুর্চি’ হিসাবে কাজ করে আসছিলেন। পুরান ঢাকার স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ মিটফোর্ড হাসপাতালের মেডিসিন ওয়ার্ডে ২৯ জুন রাত ১১টায় সুমন ব্যাপারীকে ভর্তি করার পর পর্যায়ক্রমে আট জন ডাক্তার তাকে বিভিন্ন রকম পরীক্ষা করছে। ডাক্তারদের মতে কোন ব্যাক্তি একটানা ৬ থেকে ১২ ঘণ্টা পানির নিচে ডুবে থাকলে তার শরীরের চামড়া, পশম, মাথার চুল, হাত পাসহ মুখমন্ডল সাদা ফেকাসে হয়ে বালিতে চুল আঠাঁ আঠাঁ হয়ে যাবে।

সে ক্ষেত্রে সুমনের বেলায় এমন কোন লক্ষণ দেখা যায়নি। বা তার সুরাতহালে এমন কিছু পাওয়া যায়নি। তাছাড়া তার পরনে লুঙ্গি ও গেঞ্জিতেও সেইরকম কোন নমুনা দেখা যায়নি। অন্যদিকে নৌবাহিনীর ডুবারো দলের সদস্যরা ২৯ জুন সুমনকে উদ্ধার করে তারা বলেছেন আট টি ইয়ার ব্যাগের সাহায্যে মনিং বার্ড লঞ্চটি যখন পানির নিচ থেকে নদীর উপড় অংশে উঠে আসে তখন হঠাৎ সুমন নামের ওই ব্যক্তি সাঁতরিয়ে উঠার চেষ্টা করলে ডুবুুরিরা তখন তাকে উদ্ধার করছে।

সুমন তার বক্তব্যে বলেছেন, তিনি ইঞ্জিন রুমে ছিলেন। সেখানে বুডে যাওয়ায় পর অনেক পানি খেয়ে তার পেট ভরে গেছে। পরে তিনি প্রসাব করে হালকা হন। তার তিনি পানিবন্ধি অবস্থা ওজু করে নামাজ আদায় করেছেন। অনেকের ধারণা এগুলি তার কাল্পনিক সাজানো গল্প। তারা বলেন ২০০২ সালে ঢাকা বরিশালগামী তিন তলা লঞ্চ এমভি মানসী – ৩ লঞ্চটি ৫০০ শো যাত্রী নিয়ে ঢাকার সদরঘাট থেকে বিকাল ছয়টায় ছেড়ে পাগপা পৌঁছালে প্রচণ্ড ঝড়ের কবলে পরে বুড়িগঙ্গা নদীতে ডুবে যায়।

সেই লঞ্চটিতে ডেগের নিচে ১৬ বছরের মেয়ে ও ৬৫ বছর বয়েসী মা আটকা পরে ছিলো। ওই লঞ্চ থেকে রাত ১২ টায় কেরানীগঞ্জ মডেল থানার সাবেক ওসি মোস্তাফিজুর রহমান ও আজকের কাগজ পত্রিকার সাংবাদিক আমিনের সহযোগীতায় ফতুল্লা থেকে সি বোটে করে গ্যাস সিলিল্ডার এনে মানসী লঞ্চের তলা কেট ওই মা ও মেয়েকে ছয় ঘণ্টা পর জীবিত উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে তিন ঘন্টা পর মা ও মেয়ের হাসপাতালে জ্ঞান ফিরে।

সেখানে ১৩ ঘণ্টা পানির নিচে আটকা থেকে সুমন ব্যাপারী কিভাবে সাঁতার কেটে উঠলো এবং উদ্ধার হওয়ার ১৫ মিনিট পর তার নাম পরিচয় ও পেশা নিজ মুখে প্রাকাশ করছিলো গণমাধ্যম কর্মীদের কাছে।

কাজি সুমনের ১৩ ঘণ্টা পর জীবিত উদ্ধার হওয়ার বিষয়টি বিআইডাব্লিউটিএর কর্মকর্তা ও নৌ পুলিশের সাজানো নাটক। মিটফোর্ড হাসপাতালে কয়েকজন ডাক্তার তাদের নাম না প্রাশের সর্থে বলেছেন। সুমন যে ১৩ ঘন্টা বুড়িগঙ্গা নদীতে পানির নিচে ছিলো এবং লঞ্চে আটকা পরার কোন চিহ্ন পাওয়া যায়নি যা ডাক্তারি সনদে পিলিবদ্ধ করা আছে।

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 pirojpursomoy.com
Design By Rana
error: Content is protected !!