শনিবার, ১৩ Jul ২০২৪, ০৮:১০ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
স্কুল ছাত্রী অপহরণের ৩৩ দিন হলেও এখন পর্যন্ত উদ্ধার করা যায়নি কাউখালীতে ৪টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ইসলাম শিক্ষার ক্লাস নিচ্ছেন হিন্দু শিক্ষক পিরোজপুরে বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস উপলক্ষে বিশেষ সেবা কার্যক্রম উদ্বোধন কাউখালী সরকারি বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের কক্ষে দেখা গেল সাপ কাউখালী উপজেলা অস্থায়ী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেই চিকিৎসক নেই বেড, রোগীদের দুর্ভোগ চরমে কাউখালীতে ঘূর্ণিঝড় রিমালে ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে হাইজিন কিট বিতরন পিরোজপুরে দুঃস্থ ও অসহায় পরিবারের মাঝে ঢেউটিন ও নগদ অথের্র চেক বিতরণ কাউখালীতে জমি জমা নিয়ে সংঘর্ষে আহত ৪, গ্রেপ্তার ৪ নেছারাবাদে রিমালে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ব্র্যাকের মানবিক সহায়তা প্রদান সরকার আপনাদের পাশে আছে, আমরা আপনাদের খোঁজখবর নিচ্ছি- জেলা প্রশাসক জাহেদুর রহমান কাউখালীতে প্রান্তিক চাষীদের মাঝে সার, বীজ ও নারকেল চারা বিতরণ ভাণ্ডারিয়ায় পিকআপের ধাক্কায় ২ পথচারী নিহত, আহত ৪ সকলে মিলে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করলে এলাকার শতভাগ উন্নয়ন করা সম্ভব- মহিউদ্দিন মহারাজ এমপি ভান্ডারিয়ায় বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল অনুষ্ঠিত মঠবাড়িয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী বায়জিদ কাউখালীতে মাদ্রাসার ছাত্রের আত্মহত্যা কাজল সভাপতি- নুর উদ্দিন সম্পাদক পিরোজপুর সাংবাদিক ইউনিয়নের কমিটি গঠন ভাণ্ডারিয়ায় গৃহবধূর লাশ উদ্ধার, স্বামী পলাতক ভান্ডারিয়ায় ঘূর্ণিঝড় রেমালে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে সংসদ সদস্য মহিউদ্দিন মহারাজের খাদ্য সহয়তা বিতরণ কাউখালীতে ত্রাণ না পাওয়া মহিলা মেম্বারের পরিবারের উপর হামলা। নিহত-১ গ্রেফতার-২
এবার শাহাবুদ্দিনে ভয়াবহ করোনা জালিয়াতি, হাসপতাল বন্ধ

এবার শাহাবুদ্দিনে ভয়াবহ করোনা জালিয়াতি, হাসপতাল বন্ধ

রাজধানীর উত্তরায় রিজেন্ট হাসপাতালে অভিযানে করোনা পরীক্ষা ও চিকিৎসায় ভয়াবহ জালিয়াতির তথ্য উঠে আসার পর এবার একই ধরনের অভিযোগে শাহাবুদ্দিন মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে অভিযান চালিয়েছে র‌্যাব।

গতকাল রবিবার বিকেলে গুলশান-২-এ অবস্থিত ওই হাসপাতালে অভিযান চালিয়ে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত অবৈধ অ্যান্টিবডি পরীক্ষার কিট, অন্য হাসপাতালে করোনা পরীক্ষা করিয়ে নিজেদের প্যাডে দেওয়া রিপোর্ট, পুরনো সার্জিক্যাল সরঞ্জাম এবং অবৈধভাবে ব্যবহৃত ডিভাইস জব্দ করেন। আটক করা হয় হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ডা. মো. আবুল হাসনাত ও হাসপাতালের ইনভেন্টরি অফিসার শাহরিজ কবির সাদিকে।

অভিযান শেষে ভ্রাম্যমাণ আদালত হাসপাতালটির ফার্মেসিতে অননুমোদিত ওষুধ রাখায় দুই লাখ টাকা জরিমানা করেছেন। করোনা পরীক্ষায় অনিয়ম করায় গতকাল রাতেই হাসপাতাল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। আজ রোগী সরিয়ে হাসপাতালটি সিলগালা করে দেওয়া হবে। নিয়মিত মামলা করার কথাও বলা হয়েছে।

জানা যায়, হাসপাতালের চেয়ারম্যান সাবেক বিএনপি নেতা মো. শাহাবুদ্দিন। তিনি বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সহ-অর্থবিষয়ক সম্পাদক ও ঢাকা মহানগর উত্তরের সহসভাপতি ছিলেন। পরে গত বছর ১৬ মার্চ অসুস্থতা এবং পারিবারিক কারণ দেখিয়ে দলের সব রকম পদ থেকে সরে যান।

এই অভিযানে ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের কর্মকর্তারাও উপস্থিত ছিলেন।

র‌্যাব কর্মকর্তারা বলছেন, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সম্প্রতি শাহাবুদ্দিন মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে করোনা পরীক্ষার অনুমোদন বাতিল করেছে। কিন্তু তারা অবৈধভাবে অ্যান্টিবডি পরীক্ষা করে আসছিল। এই পরীক্ষার নামে রোগীদের কাছ থেকে তিন থেকে ১০ হাজার টাকা আদায় করা হচ্ছিল। অন্য হাসপাতালে পরীক্ষা করিয়ে নিজেদের প্যাডে রিপোর্ট দেওয়া, অবৈধভাবে সরঞ্জাম ব্যবহার এবং একই মাস্ক-গ্লাভস একাধিকবার ব্যবহারের আলামত পেয়েছেন র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, দুপুর আড়াইটার দিকে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত গুলশান-২ নম্বরের ১১৩/এ নম্বর সড়কের শাহাবুদ্দিন মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে অভিযান শুরু করেন। সন্ধ্যা পর্যন্ত চলা এই অভিযানে করোনা পরীক্ষায় ও চিকিৎসায় ব্যবহৃত সরঞ্জাম, উপকরণ, রিপোর্ট ও নথিপত্র যাচাই করেন আদালত। অভিযানে অসহযোগিতা করায় বিকেল ৫টার দিকে ডা. আবুল হাসনাতকে হেফাজতে নেয় র‌্যাব। এর আগে হাসপাতালের ইনভেন্টরি অফিসার শাহজির কবির সাদিকেও হেফাজতে নেওয়া হয়। হাসপাতালে তল্লাশি চালিয়ে বেশ কিছু র‌্যাপিড কিট ও রিপোর্ট জব্দ করা হয়। ফার্মেসিতেও ওষুধ যাচাই করেন আদালত। সেখান থেকে ১১ বছর আগের সার্জিক্যাল সরঞ্জাম জব্দ করা হয় বলে জানান সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

আদালত পরিচালনাকারী র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার আলম সাংবাদিকদের বলেন, ‘হাসপাতালটি অনুমোদন ছাড়াই র‌্যাপিড কিট দিয়ে কভিড-১৯ রোগীদের অ্যান্টিবডি টেস্টের কাজ করছিল। এ ছাড়া তারা অ্যান্টিবডি পরীক্ষার নামে রোগীদের কাছ থেকে তিন থেকে ১০ হাজার টাকা করে নেয় বলে অভিযোগ পেয়েছি।’ তিনি আরো বলেন, হাসপাতালটির বিরুদ্ধে তাঁরা তিনটি অভিযোগ পেয়েছেন। এর মধ্যে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর তাদের কভিড-১৯ পরীক্ষার অনুমোদন দিয়েছিল। কিন্তু তাদের স্বয়ংক্রিয় মেশিন না থাকায় এই অনুমোদন বাতিল করা হয়। এর পরও তারা গোপনে পরীক্ষা চালিয়ে যাচ্ছিল। তারা বাইরের রোগীদেরও টেস্ট করেছে। এই টেস্টগুলো তারা ডিভাইসের মাধ্যমে করেছে। কিন্তু বাংলাদেশে সেই ডিভাইস ব্যবহারের অনুমোদন নেই। আর যেসব রিপোর্ট দিয়েছে তা সবই ভুয়া। দ্বিতীয় অভিযোগ হলো—হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ কিছু পরীক্ষা বাইরের অন্যান্য হাসপাতাল থেকে করে তা নিজেদের প্যাডে লিখে রোগীদের দিয়েছে। তৃতীয় অভিযোগ হলো—তারা কিছু সামগ্রী যেমন মাস্ক, গ্লাভস এগুলো একের অধিকবার ব্যবহার করছে। এগুলো মূলত একবার ব্যবহারযোগ্য। কিন্তু তারা এগুলো বারবার ব্যবহার করছে।

র‌্যাবের সূত্র জানিয়েছে, কভিড-১৯ (করোনাভাইরাস) রোগীদের চিকিৎসায় যুক্ত বেসরকারি মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মধ্যে অন্যতম ৫০০ শয্যার শাহাবুদ্দিন মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল। সম্প্রতি বেশ কিছু অনিয়মের অভিযোগ ওঠে হাসপাতালটির বিরুদ্ধে। রোগীরা অতিরিক্ত বিল আদায়ের অভিযোগ তুলেছে। বিভিন্ন তথ্যের ভিত্তিতে গতকাল অভিযানে যান র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

গতকাল রাতে র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আশিক বিল্লাহ  বলেন, অভিযানে অবৈধভাবে অ্যান্টিবডি টেস্টের রিপোর্ট পাওয়া গেছে। যাচাই-বাছাই শেষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার প্রক্রিয়া চলছে।

প্রসঙ্গত, গত ৬ জুলাই রাজধানীর উত্তরায় রিজেন্ট হাসপাতালে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে করোনা পরীক্ষা ও চিকিৎসায় প্রতারণার ভয়াবহ তথ্য উঠে আসে। এর আগে পুলিশের অভিযানে ধরা পড়ে জেকেজি নামের একটি প্রতিষ্ঠান করোনা পরীক্ষার নামে জালিয়াতির তথ্য। এসব প্রতিষ্ঠানের কর্তাদের গ্রেপ্তার করেছে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

সূত্রঃ কালের কণ্ঠ

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 pirojpursomoy.com
Design By Rana
error: Content is protected !!