মঙ্গলবার, ২৩ Jul ২০২৪, ১০:৫০ অপরাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
কটুক্তির প্রতিবাদে পিরোজপুরে মুক্তিযোদ্ধা ও সন্তানদের মানববন্ধন কাউখালী গাঁজা সহ এক ঔষধ ব্যবসায়ী গ্রেফতার মারা গেছেন ছারছীনার পীর কাউখালীতে বিআরডিবি অফিসের জনবল সংকট, কাঙ্খিত সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে ভুক্তভোগী জনগণ কাউখালীতে ৪০ পিস ইয়াবাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক কাউখালীতে কৃষকদের মাঝে ফলের চারা বিতরণ বালু বোঝাই বাল্ক‌হেডের ধাক্কায় ব্রিজ ভে‌ঙে খা‌লে এক বছরেও পুণ:নির্মাণ হয়নি নাজিরপুরে যে কারনে মাকে কুপিয়ে হত্যা করলো ছেলে ৯ বছরের সাজার জন্য ৩৫ বছর পালিয়েও শেষ রক্ষা হলো না স্কুল ছাত্রী অপহরণের ৩৩ দিন হলেও এখন পর্যন্ত উদ্ধার করা যায়নি কাউখালীতে ৪টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ইসলাম শিক্ষার ক্লাস নিচ্ছেন হিন্দু শিক্ষক পিরোজপুরে বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস উপলক্ষে বিশেষ সেবা কার্যক্রম উদ্বোধন কাউখালী সরকারি বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের কক্ষে দেখা গেল সাপ কাউখালী উপজেলা অস্থায়ী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেই চিকিৎসক নেই বেড, রোগীদের দুর্ভোগ চরমে কাউখালীতে ঘূর্ণিঝড় রিমালে ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে হাইজিন কিট বিতরন পিরোজপুরে দুঃস্থ ও অসহায় পরিবারের মাঝে ঢেউটিন ও নগদ অথের্র চেক বিতরণ কাউখালীতে জমি জমা নিয়ে সংঘর্ষে আহত ৪, গ্রেপ্তার ৪ নেছারাবাদে রিমালে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ব্র্যাকের মানবিক সহায়তা প্রদান সরকার আপনাদের পাশে আছে, আমরা আপনাদের খোঁজখবর নিচ্ছি- জেলা প্রশাসক জাহেদুর রহমান কাউখালীতে প্রান্তিক চাষীদের মাঝে সার, বীজ ও নারকেল চারা বিতরণ
মঠবাড়িয়ার অবৈধ স্থাপনায় ডিসি আবু আলী মোঃ সাজ্জাদ হোসেনের পরিদর্শন

মঠবাড়িয়ার অবৈধ স্থাপনায় ডিসি আবু আলী মোঃ সাজ্জাদ হোসেনের পরিদর্শন

মোঃ রুম্মান হাওলাদার মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় মৎস্য ভবন স্থাপনের নামে মূল ভবন সংলগ্ন অবৈধ স্থাপনা নির্মাণের অভিযোগে সরজমিনে পরিদর্শন করেছেন পিরোজপুর জেলা প্রশাসক আবু আলী মোঃ সাজ্জাদ হোসেন।

মঙ্গলবার (৮ সেপ্টেম্বর) বিকাল সাড়ে ৩ টায় চরখালী পাথরঘাটা আঞ্চলিক মহাসড়কের পাশে নব নির্মিত মৎস্য ভবন সংলগ্ন খাস জমিতে স্থাপিত এ অবৈধ স্থাপনা পরিদর্শন করেন তিনি। জানা গেছে, মঠবাড়িয়া পৌর শহরে নবনির্মিত মৎস্য ভবন স্থাপন করে ভবন সংলগ্ন আঞ্চলিক মহাসড়কের গাঁ ঘেসে অবৈধ দোকান ঘর স্থাপন করে বরাদ্দ দেওয়ার নামে কোটি কোটি টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগ ওঠে। বিষয়টি নিয়ে মঠবাড়িয়া পৌরসভার স্থায়ী বাসিন্দারা দুর্নীতি দমন কমিশনসহ একাধিক দপ্তরে অভিযোগ করেন। এ ছাড়াও বিষয়টি নিয়ে একাধিক জাতীয় পত্রপত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হয়। অবৈধ স্থাপনাটি জনস্বার্থ বিরোধী হওয়ায় গত ১৭ জুলাই স্থানীয় সাংসদ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে একটি ডিওলেটার প্রেরণ করেন। যার স্মারক নং ২২৯। ডিও পত্রটির বিষয়ে তদন্ত করে প্রচলিত আইন ও বিধি মোতাবেক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণপূর্বক সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়কে অবহিতকরণের জন্য বলা হয়। মঠবাড়িয়া পৌর শহরের ওপর দিয়ে চলমান আঞ্চলিক মহাসড়কটি অবৈধ স্থাপনায় হুমকির মুখে। দখলদাররা ক্ষমতার অপব্যবহার করে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে ভুল বুঝিয়ে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ করায় সড়কটির পৌর শহরের অংশ দিয়ে যান চলাচলে বিঘ্ন সৃষ্টি হচ্ছে। ফুটপাত না থাকায় পথচারীরা বিপাকে পড়ছে। ঢাকাগামী পরিবহনসহ বিভিন্ন যানবাহন প্রায়ই যানজটের কবলে পড়তে হচ্ছে। মঠবাড়িয়া কে.এম লতিফ ইনষ্টিটিউটের প্রায় দেড় হাজার শিক্ষার্থী ছুটির পর ব্যাপক যানজটের সৃষ্টি হয়। শিক্ষার্থীরা সড়ক দুর্ঘটনারও শিকার হয়। অবৈধ স্থাপনা ও স্কুলের মধ্যবর্তী ব্রিজটি পুনঃনির্মাণ হলে অবৈধ স্থাপনা রাস্তার মধ্যে চলে আসবে বলে মনে করছেন অনেকেই। তারপরেও কিভাবে এখানে মূল ভবন সংলগ্ন পকেট দোকান তৈরি করে সড়কটিকে ঝুকির মধ্যে ফেলা হয়েছে তা কারোই বোধগম্য নয়। অবৈধ স্থাপনাটি মঠবাড়িয়া পৌর শহরের ৪ টি সড়কের প্রাণকেন্দ্রে স্থাপন করায় প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষকে দুর্ভোগ পোহাতে হয়। একটি বাস গেলে আর কোন যানবাহন ক্রোস করার সুযোগ থাকেনা। দুটি বাস মুখোমুখি হলে ঘন্টার পর ঘণ্টা রাস্তা বন্ধ হয়ে যায়। মঠবাড়িয়ায় ইতোপূর্বে অন্যান্য অবৈধ স্থাপনা অপসারনে আন্দোলনসহ মানববন্ধন ও অভিযোগ হলেও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ কোন ব্যবস্থা না নেওয়ায় জনমনে বিরুপ প্রশ্ন উঠেছে। এতে দখল বাণিজ্য রমরমা হয়ে উঠেছে। অনিয়মের বিরুদ্ধে কথা বলা জনপ্রতিনিধিদের ম্যানেজ করে খাস জমি দখলে মেতে উঠেছে ভুমিখেকো একটি চক্র। এদের বিরুদ্ধে মুখ খোলার সাহস পাচ্ছে না কেউ। জেলা প্রশাসক পরিদর্শনে আসলে অবৈধ স্থাপনা টিকিয়ে রাখার পক্ষে শক্তি প্রদর্শন করতে দেখা যায় একটি গ্রুপকে। প্রশাসনের উপস্থিতিতেই অনিয়মের পক্ষে শক্তি প্রদর্শন করায় আতঙ্কিত হয়ে মুখ খুলতে পারেননি সাধারণ জনগণ। তবে স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধারা জেলা প্রশাসককে অবৈধ স্থাপনা দ্রুত অপসারণের জন্য জোর দাবি করেছেন। এ সময় মুক্তিযোদ্ধাদেরও বিভিন্ন হুমকির সম্মুখীন হতে হয়। মুক্তিযোদ্ধা এমাদুল হক জানান, ফুটপাত ও ড্রেনের জায়গা দখল করে দোকান স্থাপনা নির্মাণ সম্পূর্ণ অনিয়ম। জনস্বার্থে এ অনিয়মের বিরুদ্ধে সর্বাত্মক আন্দোলন গড়ে তোলা হবে। এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসক আবু আলী মো. সাজ্জাদ জানান, বিষয়টি পর্যালোচনা করে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট তদন্ত প্রতিবেদন প্রেরণ করা হবে।’

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 pirojpursomoy.com
Design By Rana
error: Content is protected !!