বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ০৮:৩৬ অপরাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
ভান্ডারিয়ায় নারীর প্রতি সহিংসতা বন্ধ গণ স্বাক্ষরতা ও সচেতনতা বৃদ্ধির মূলক কার্যক্রম উদ্ধোধন ভান্ডারিয়ায় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণে সেমিনার অনুষ্ঠিত আশুগঞ্জে জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মেলায় কোভিড-১৯ এবং স্বাস্থ্য সুরক্ষা প্রসঙ্গ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হত্যা মামলায় পাঁচজনের যাবজ্জীবন ঝালকাঠিতে একতলা ভবনের ছাঁদ থেকে এক নারীর লাশ উদ্ধার করছে পুলিশ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বুধল-মজলিশপুর সড়ক উন্নয়ন কাজে ব্যাপক অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ কাউখালীতে আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ উপলক্ষ্যে সংবাদ সম্মেলন যে কারণে কারাতে শিখছেন মেহজাবিন দিনাজপুরের খানসামায় তিন গাঁজা ও ইয়াবা ব্যবসায়ীকে আটক করেছে পুলিশ নবীনগর প্রেসক্লাব সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় করলেন নবাগত ওসি সানা খানের স্বামী কে এই মুফতি আনাস, কিভাবে পরিচয়? ভান্ডারিয়ায় ট্রলার টেম্পু উল্টে কলেজ ছাত্রের মৃত্যু ডেঙ্গুতে নড়াইল পৌরমেয়রের মৃত্যু ভাণ্ডারিয়ায় বঙ্গবন্ধু পরিষদের উদ্যোগে সেমিনার অনুষ্ঠিত শিক্ষার্থীদের আদর্শ শিক্ষায় শিক্ষিত করতে হবে: প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী স্বামীর পরকীয়ায় বলি সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী, স্বামী আটক করোনায় আক্রান্ত পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেসির রেকর্ডে ভাগ বসালেন রোনালদো শরীয়তপু‌রে গৃহবধূক‌ে দল‌বেঁধে ধর্ষণ ও হত্যা মামলায় তিনজ‌নের মৃত‌্যুদণ্ড পুলিশ ফাঁড়ির সামনের বাসার ছাদে নারীর লাশ



শীতে বায়ু দূষণ থেকে বাঁচতে মেনে চলুন এই নিয়মগুলো

শীতে বায়ু দূষণ থেকে বাঁচতে মেনে চলুন এই নিয়মগুলো



শীতে তো বটেই, বিশেষ করে তাপমাত্রা কমলেই বায়ুদূষণের মাত্রা বাড়তে থাকে। আর ছোট-ছোট ক্ষতিকারক ধূলিকণা আমাদের শ্বাসযন্ত্রে প্রবেশ করে। পাশাপাশি বাতাসে উপস্থিত ধোঁয়া, কার্বন ডাই অক্সাইড, মিথেন থেকে শুরু করে একাধিক ক্ষতিকর উপাদানের প্রভাবে অ্যাজমা, ফুসফুসে সংক্রমণ, হাঁপানিসহ একাধিক রোগ হতে পারে। কিন্তু প্রতিদিনের এই যানবাহন, কলকারখার দূষণ থেকে পালিয়ে যাওয়ার কোন উপায় নেই। এই পরিস্থিতিতে নিজেকে সচেতন হতে হবে। ম্প্রতি কেমিক্যাল এন্ড ইঞ্জিয়ারিং নিউজ জার্নালে প্রকাশিত একটি সমীক্ষায় বায়ুদূষণের ক্ষতিকর প্রভাব নিয়ে বিস্তর গবেষণা করা হয়েছে। সমীক্ষার সঙ্গে যুক্ত গবেষকরা জানাচ্ছেন, শিশু থেকে শুরু করে প্রাপ্তবয়স্ক পর্যন্ত সকলের শরীরেই বায়ুদূষণের ক্ষতিকর প্রভাব রয়েছে। এটি ক্ষণস্থায়ী হতে পারে, আবার দীর্ঘস্থায়ীও হতে পারে। বায়ুদূষণের জেরে ডিমেনশিয়া, অটিজমসহ নানা ধরনের নিউরোলজিকাল ডিজঅর্ডার দেখা যায়। এর পাশাপাশি অ্যাজমা, ফুসফুসে সংক্রমণ, হাঁপানিসহ একাধিক রোগও হতে পারে। এমনকি বায়ুদূষণের প্রভাবে অন্তঃসত্ত্বার শরীরেও নানা সমস্যা হয়। এ জন্য বাচ্চারও ক্ষতি হতে পারে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতে, বায়ুদূষণ তথা বাতাসের গুণগত মান হ্রাস পাওয়ায় নির্দিষ্ট আয়ুষ্কালের আগেই বিশ্বজুড়ে প্রায় ৪.২ মিলিয়ন মানুষের মৃত্যু হয়েছে। এর জন্য ভয়ঙ্করভাবে দায়ি ইনডোর পলিউশনও।বায়ুদৃষণের জেরে অসুস্থ হওয়া ও মৃত্যুর একটি দীর্ঘ পরিসংখ্যান রয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার কাছে। যেখানে বলা হয়েছে সমস্ত রোগ ও মৃত্যুর ২৯ শতাংশই ফুসফুসে ক্যানসারের কারণে হয়। এর কারণ বায়ুদূষণ। বায়ুদূষণের জেরে অ্যাকিউট লোয়ার রেসপিরেটরি ইনফেকশন হয়। বিশ্বে মোট মৃত্যু ও রোগের ১৭ শতাংশই এই পরিস্থিতির শিকার। স্ট্রোকে মোট মৃত্যুর ২৪ শতাংশের পিছনে রয়েছে বায়ুদূষণ। বায়ুদূষণের কারণে ক্রনিক অবস্ট্রাকটিভ পালমোনারি ডিজিজ হয়। বিশ্বে মোট মৃত্যু ও রোগের প্রায় ৪৩ শতাংশই এই রোগের শিকার। তাই এই ক্রমবর্ধমান বায়ুদূষণের ক্ষতিকর প্রভাব থেকে বাঁচতে কিছু সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে। এ ক্ষেত্রে এই নির্দিষ্ট নিয়মগুলো মেনে চলা জরুরি: ১. প্রতি দিন বাড়ির বাইরে বের হওয়ার আগে একবার আবহাওয়ার রিপোর্টের পাশাপাশি বাতাসে দূষণের মাত্রাটাও জেনে নিতে হবে। যদি সকালে ধোঁয়াশা বা দূষণের মাত্রা বৃদ্ধির খবর থাকে, তা হলে শরীরচর্চার জন্য বাইরে কোনও রাস্তায় বা পার্কে না যাওয়াই ভালো। ২. যে সব জায়গায় হাই ট্র্যাফিক রয়েছে, সেই এলাকাগুলি থেকে দূরে থাকাই বাঞ্ছনীয়। প্রয়োজনে ফাঁকা জায়গায় সাইকেল চালানো যায়। এ ক্ষেত্রে গাড়ি থেকে নির্গত দূষিত ধোঁয়া শ্বাসযন্ত্রে পৌঁছবে না। ৩. বায়ুদূষণ সৃষ্টিকারী যে কোনও এনার্জি সোর্স থেকে দূরে থাকতে হবে। বাড়িতে এই জাতীয় কোনও যন্ত্র থাকলে, তা ব্যবহার করা কমাতে হবে। সেই জায়গায় এমন কিছু আসবাবপত্র ও জিনিস ব্যবহার করতে হবে, যা জ্বালানি বা শক্তি পুনর্নবীকরণে সাহায্য করে। এর জেরে গ্রিন হাউজ গ্যাস নির্গমন রোধের পাশাপাশি বাতাসের দূষণের মাত্রাও কমবে। ৪. ঠাণ্ডা থেকে বাঁচতে ঘরের মধ্যে কাঠ জ্বালানো যাবে না। ৫. ঘরের মধ্যে ধূমপান না করাই ভালো।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন










© All rights reserved © 2019 pirojpursomoy.com
Design By Rana