মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২১, ১২:০০ অপরাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
বরগুনায় সাংবাদিক নির্যাতন প্রতিরোধ কমিটির সম্পাদকের বাড়িতে ককটেল বিস্ফোরন হিল্লা বিয়ে গৃহবধূ ও কাজীর, স্কুলছাত্রের করা ‘গোপন ভিডিও’ ভাইরাল পাবনায় সাংবাদিকের বাড়িঘরে হামলা-ভাঙচুর আশুগঞ্জে ওকাপ এর মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত তীব্র শীতে জবুথবু কেশবপুরের জনজীবন চিতলমারীতে জমি দখল নিয়ে সংঘর্ষ, আহত ৭ অর্থপাচার মামলায় হাইকোর্টে জামিন পেলেন ফরিদপুরের আবু ফকির ২৫ জানুয়ারি দেশে করোনা টিকা আসবে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী মেয়ে নায়িকা, বাবা সাবেক বিচারপতি; পথে পথে ভিক্ষা করছেন নারী! ট্রাম্পের উ. কোরিয়া নীতি থেকে বাইডেনকে শিক্ষা নিতে বললেন মুন ‘অপরাধীদের রাজনৈতিক পরিচয় থাকলেও ছাড় দেওয়া হবে না’ মঠবাড়িয়ায় কেন্দ্রীয় যুবলীগ সাধারণ সম্পাদকের রোগমুক্তি কামনায় দোয়া মিলাদ দেশে মূল জনশুমারি ২৫-৩১ অক্টোবর এক বাইকে ৭ জন, পুলিশ হাত জোড় করে সামনে দাঁড়াল ‘রাজাকারের তালিকা প্রকাশে আইন পাস করা হবে’ আ.লীগ প্রার্থী স্নাতকোত্তর, বিএনপি প্রার্থী এসএসসি পাস সংসদের শীতকালীন অধিবেশন শুরু আজ! ভাষণ দেবেন রাষ্ট্রপতি মেসি বনাম রোনালদো: লালকার্ডে এগিয়ে যিনি বাড়ছে উত্তেজনা, এবার ইসরায়েলিদের প্রবেশের সুযোগ দিলো সৌদি! ইন্টারের কাছে হারলো রোনালদোরা
দেশ স্বাধীনের প্রায় ৫০ বছরেও গেজেটভূক্ত হননি মুক্তিযোদ্ধা সত্যেন্দ্রনাথ রায়

দেশ স্বাধীনের প্রায় ৫০ বছরেও গেজেটভূক্ত হননি মুক্তিযোদ্ধা সত্যেন্দ্রনাথ রায়

পিরোজপুরের নেছারাবাদ (স্বরুপকাঠী) উপজেলার সত্যেন্দ্র নাথ রায় মুক্তিযুদ্ধে অংশ নিয়ে আজও মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি পাননি। মুক্তিযোদ্ধাদের সর্বশেষ তালিকায় নাম নাই এই বীর মুক্তিযোদ্ধার। তবে দেশের জন্য জীবন উৎসর্গ করতে ছিল নিবেদিত প্রাণ, স্বাধীনতার এ দীর্ঘ সময়ে এখনও স্বীকৃতি পায়নি অনেক মুক্তিযোদ্ধা। তাদেরই একজন উপজেলার দৈহারী ইউনিয়নের উড়িবুনিয়া গ্রামের সত্যেন্দ্র নাথ রায় (৬৭)।

তিনি আক্ষেপ করে বলেন, এ বছর বাংলাদেশ উদযাপন করবে স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী। কোনও স্বীকৃতি পেলাম না আজও।বি ত সত্যেন্দ্র নাথ রায় জানান, দেশে মুক্তিযুদ্ধ শুরুর পর তিনি ভারতে চলে যান এবং সেখানে প্রশিক্ষণ গ্রহন করেন। সেখানে তার ওস্তাদ ছিলেন ভিম সিং, জ্ঞান সিং ও এম এল রায়। এছাড়া এফ এফ ফ্রিডম ফাইটের রোল নং ছিল ১৮১। প্রশিক্ষণ শেষে তিনি যশোর ও খুলনার বিভিন্ন স্থানে যে কয়টি যুদ্ধ সংগঠিত হয়েছে তিনি অংশ নেন। দেশ স্বাধীন হওয়ার পর তিনি বরিশাল থেকে ভাতাও তুলেছেন বলে জানান। তবে বরিশাল থেকে ফেরার পথে তিনি ডাকাতদের কবলে পড়েন।

এ সময় ডাকাতরা মুক্তিযুদ্ধের সকল কাগজপত্রসহ তার ব্যাগটি ছিনিয়ে নেয়। এরপর তিনি তার কাগজগুলো আর উদ্ধার করতে পারেননি। সত্যেন্দ্র নাথ রায় দাবি করেন, তিনি কোন কিছু পাওয়ার জন্য মুক্তিযুদ্ধে অংশ নেননি। তবে সরকার যেহেতু বর্তমানে মুক্তিযোদ্ধাদের বিভিন্ন ধরণের সুযোগ সুবিধা দিচ্ছে, সেগুলো পাওয়ার অধিকার আছে তার।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন













© All rights reserved © 2019 pirojpursomoy.com
Design By Rana