শুক্রবার, ২১ জানুয়ারী ২০২২, ১০:৫২ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পিকআপ চাপায় নিহত ২ স্কুল ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত’র প্রতিবাদ করায় বখাটের হামলায় ভাই আহত ভান্ডারিয়ায় ইউপি সদস্যের ওপর হামলা মঠবাড়িয়ায় পদোন্নতির দাবীতে ভূমি অফিসার্স কল্যাণ সমিতির কালোব্যাজ ধারণ সরাইলে স্বপ্নের রাস্তা নির্মাণ করলেন গ্রামবাসী মঠবাড়িয়ায় ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার ভান্ডারিয়ায় জোরদার করণ বিষয়ক অবহিতকরণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত স্বরূপকাঠির ইট ভাটাগুলোতে কাঠ পোড়ানো হচ্ছে, প্রশাসন নিরব দেখার ও বলার কেউ নেই মঠবাড়িয়ায় প্রায় ১৪ কোটি টাকার উন্নয়ন কাজে ঠিকাদার নির্ধারনে লটারী ভান্ডারিয়ায় বাংলাদেশে ওয়ার্ল্ড ভিশনের ৫০ বছর পূর্তি উদযাপন ভান্ডারিয়ায় হিফজুল কুরআন প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ ভুমি সহকারি কর্মকর্তা ও ভুমি উপ সহকারি কর্মকর্তাদের উন্নত বেতন স্কেলের স্থগিতাদেশ প্রত্যাহারের দাবিতে কালোব্যাজ ধারন কর্মসুচি পালিত রাজাপুরে প্রতিপক্ষের হামলায় নারী সহ আহত-৮ রাজাপুরের কানুদাসকাঠী প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তদন্তে যুগ্নসচিব বানারীপাড়ায় উদয়কাঠিতে  অনৈতিক কাজ করতে গিয়ে ২ যুবককে হাতেনাতে ধরে  পুলিশে কাছে সোপর্দ প্রতিবন্ধী শিশুদের ব্যক্তিগত ৪০ লাখ টাকা অনুদান দিলেন ভাণ্ডারিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান ভান্ডারিয়ায় ভাতিজার হামলায় চাচার মৃত্যু ভান্ডারিয়ায় সাড়ে চার কেজি গাঁজা জব্দ এক মাদক কারবারি গ্রেফতার দুর্নীতির অভিযোগে সাবেক অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি ভান্ডারিয়ায় উপজেলা আইন শৃঙ্খলা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত
বীর্য সন্ত্রাসের শিকার দ. কোরিয়ার নারীরা: গার্ডিয়া

বীর্য সন্ত্রাসের শিকার দ. কোরিয়ার নারীরা: গার্ডিয়া

নতুন পন্থায় যৌন হেনস্থায় মেতেছে দক্ষিণ কোরিয়ার দুষ্কৃতিকারীরা। তাদের হাতিয়ার এখন বীর্য সন্ত্রাস বা সিমেন টেরোরিজম। নারীদের জিনিসপত্রে মাখিয়ে দেয়া হচ্ছে বীর্য। এমন কী, কফি বা খাবারেও মিশিয়ে দেয়া হচ্ছে তা।

নারীদের উপর রাগ মেটাতে এই পন্থা অবলম্বন করছে পুরুষদের একাংশ। মজার কথা হলো, এই কাণ্ড ঘটালেও অভিযুক্তর বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তার মামলা করা যায় না। আর এই ইস্যুতেই উত্তাল দক্ষিণ কোরিয়ার রাজপথ। নারীদের বিক্ষোভ সামাল দিতে হিমশিম খাচ্ছে পুলিশ।

২০১৯ সালে হ্যাশট্যাগ মি ঠু নিয়ে যখন গোটা বিশ্ব উত্তাল হয়ে উঠেছিল সে সময় সামনে আসে এই বীর্য সন্ত্রাসের কাহিনী। দক্ষিণ কোরিয়ায় কয়েক হাজার নারী এই সন্ত্রাসের কোপে পড়েছে বলে অভিযোগ।

প্রথমে এক নারীর জুতোতে বীর্য লাগিয়ে দেয়ার অভিযোগ ওঠে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। আদালত অভিযুক্তকে ৪৩৫ ডলার জরিমানা করে। পুলিশ জানায়, ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে সম্পত্তি নষ্টের অভিযোগ আনা হয়েছে। কারণ এমন অপরাধের ক্ষেত্রে নির্দিষ্ট কোনও আইনই নেই।

সেই থেকে শুরু। পরবর্তীতে এ ধরনের আরও অনেক অভিযোগ সামনে আসতে থাকে। একবার দেখা যায়, এক নারীর পানীয়তে বীর্য মিশিয়ে দিয়েছে এক পুরুণ। কারণ, অভিযুক্ত ওই নারীকে একাধিকবার প্রেমপ্রস্তাব দিয়েছিল সে। কিন্তু তিনি তার প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছিলেন। তারই বদলা নিতে গিয়েই এমন কাণ্ড ঘটিয়েছিল।

অভিযুক্তকে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা হিসেবে ৩ বছরের জেল দেওয়া হয় তার। দিন কয়েক আগে তো এক সরকারি আধিকারিকের কফিতেও বীর্য মেশানো হয়েছিল। একবার নয়, ছয় বার তার কফিতে বীর্য মিশিয়েছিল সহকর্মীরা। যদিও পুলিশ তাদের বিরুদ্ধে কেবলমাত্র কফি কাপ নোংরা করার অভিযোগ আনে।

বারবার এ ধরনের অভিযোগ সামনে আসতে থাকে। অথচ অভিযুক্তের শাস্তির ব্যবস্থা নেই সে দেশের আইনে। তাই এবার বীর্য সন্ত্রাসকারীদের বিরুদ্ধে কড়া আইন আনার পক্ষে দক্ষিণ কোরিয়ার রাজনীতিবিদরাও। আন্দোলনে নেমে গেছে সে দেশের নারীরা।

এ প্রসঙ্গে ডেমোক্র্যাটিক পার্টির নেতা বেক হি রাইয়ান জানান, ওই সরকারি কর্মীর বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তার অভিযোগ আনা হয়নি। কারণ, সে অভিযোগকারিনীকে স্পর্শ করেনি। ফলে এটি আইন অনুযায়ী যৌন হেনস্থার পর্যায়ে পড়ে না। তবে এই আইনের দ্রুত বদল দরকার। আন্দোলনরত নারীরাও একই দাবিতে আন্দোলন করছেন। যাতে এমন কাণ্ড করে কেউ রেহাই না পায়।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন










© All rights reserved © 2019 pirojpursomoy.com
Design By Rana