সোমবার, ১৬ মে ২০২২, ০৮:১৩ অপরাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
ভয়েস অব আমেরিকার বাংলাদেশ প্রতিনিধি আমির খসরু’র মায়ের লাশ উদ্ধার গণধর্ষণের শিকার গৃহবধূর আত্মহত্যা, যুবক গ্রেফতার খেলাধুলায় সম্পৃক্ত থাকলে আমাদের সন্তানরা বিপদগামী হবে না- মহিউদ্দিন মাহারাজ ভান্ডারিয়ায় বঙ্গবন্ধু জাতীয় গোল্ড কাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট উদ্বোধন পিরোজপুর জেলা ইমারত নির্মান শ্রমিক ইউনিয়নের নির্বাচনে আলমগীর সভাপতি ও রুস্তুম সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত সরাইলে সয়াবিন তৈল মজুত রাখার দায়ে এক ব্যবসায়ীকে জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত আখাউড়া উপজেলা চেয়ারম্যানের প্রতি অনাস্থা জানিয়ে পদত্যাগের দাবি করেছেন সদস্যরা আশুগঞ্জে ট্রেনে কাটা পড়ে এক বছরে ৪২ জনের মৃত্যু ভারতের সাজার মেয়াদ শেষে আখাউড়া দিয়ে ফিরলেন পাঁচ বাংলাদেশি সাংবাদিকরা বন্দরে আসলে লাশ ফেলে দেয়ার হুমকি লাগেজ পার্টি ভান্ডারিয়ায় বেশী দামে সয়াবিন বিক্রি করায় জরিমানা নেছারাবাদে স্বামী-সন্তান-নাতি রেখে মেম্বারের বাড়িতে গৃহবধু ঘূর্ণিঝড় ‘অশনি’ আজও শক্তিশালী অবস্থানে থাকবে প্রেমে ব্যর্থ হয়ে ইন্দুরকানীতে যুবকের গলায় ফাঁস দিয়ে আত্নহত্যা বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে জেলা পরিষদের নবনিযুক্ত প্রশাসকদের শ্রদ্ধা নিবেদন ভান্ডারিয়ায় বিশ্ব মা দিবস পালিত অবহেলায় রোগীর মৃত্যু তদন্ত রিপোর্ট আসার আগেই আবারো অবহেলায় রোগীর মৃত্যু (ভিডিও) মঠবাড়িয়ায় যুবক খুন গ্রেফতার ৪ প্রযুক্তি ও প্রকৌশলগত উন্নয়নই একটি জাতির উন্নয়নের মূল বিষয়: প্রধানমন্ত্রী কিউবায় অভিজাত হোটেলে বিস্ফোরণ, নিহত ২২
ইন্দুরকানীতে প্রেমের বিয়ের বছর না যেতেই লাশ হলো কিশোরী

ইন্দুরকানীতে প্রেমের বিয়ের বছর না যেতেই লাশ হলো কিশোরী

পিরোজপুরের ইন্দুরকানীতে সুমী আকতার নামে এক গৃহবধূকে যৌতুকের জন্য নির্যাতন করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্বামী ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে। তবে অভিযুক্তরা বলছেন, যৌতুকের জন্য নয়, স্বামী-স্ত্রীর মনোমালিন্যের কারণে বিষ খেয়ে আত্মহত্যা করেছে সুমী।

 

গতকাল মঙ্গলবার রাতে উপজেলার বালিপাড়া ইউনিয়নের ঢেপসাবুনিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।গৃহবধূর স্বামী হৃদয় হাওলাদার ও শাশুড়ি জেসমিন বেগমকে আটক করেছে পুলিশ ।

গৃহবধূর মরদেহ রাতেই উদ্ধার করে পুলিশ ইন্দুরকানী থানায় নিয়েছে। নিহত সুমীর নানা সাকায়েত ফরাজী বাদী হয়ে মঙ্গলবার রাতে গৃহবধূর স্বামী, শ্বশুর, শাশুড়ি ও ননদের বিরুদ্ধে ইন্দুরকানী থানায় হত্যার লিখিত অভিযোগ করেন।

 

সুমীর নানা সাকায়েত ফরাজী জানান, উপজেলার ঢেপসাবুনিয়া গ্রামের প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক ফারুক হাওলাদারের ছেলে হৃদয় হাওলাদার (১৮) ও একই গ্রামের প্রবাসী সাহিদা বেগমের কিশোরী মেয়ে সুমী আকতারের (১৭) প্রায় এক বছর আগে প্রেমের সম্পর্কের সুবাদে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই সংসারে শ্বশুর-শাশুড়ির সঙ্গে কলহ চলছিল। সুমীকে তার মায়ের কাছ থেকে মোটরসাইকেল কেনার টাকা আনতে বলেন শাশুড়ি। টাকা না আনায় তাকে তার স্বামী, শ্বশুর, শাশুড়ি ও ননদ মিলে ঘরের মধ্যে আটকিয়ে অমানবিক নির্যাতন করেন। নির্যাতনের ফলে মারা যান সুমী। পরে বিষ খেয়েছে বলে পিরোজপুর জেলা হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক সুমীকে মৃত ঘোষণা করেন। তখন মরদেহ নিয়ে তারা দ্রুত বাড়িতে আসেন।

 

সুমীর মামা মনির হোসেন বলেন, আমার ভাগ্নিকে টাকার জন্য তার স্বামী ও পরিবারের লোকেরা পিটিয়ে হত্যা করেছে।

 

এ বিষয়ে সুমীর শ্বশুর ফারুক হাওলাদার বলেন, স্বামী-স্ত্রীর মনোমালিন্য হলে ঘরে থাকা চাউলের বিষের বড়ি খেয়ে আত্মহত্যা করেছেন সুমী।

 

ইন্দুরকানী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. এনামুল হক বলেন, গৃহবধূ মৃত্যুর ঘটনায় তার স্বামী ও শাশুড়িকে আটক করা হয়েছে। তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেছে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হচ্ছে। মৃত্যু নিয়ে পরস্পর বিরোধী বক্তব্য রয়েছে। রিপোর্ট পেলে বিষয়টি পরিষ্কার হবে।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন










© All rights reserved © 2019 pirojpursomoy.com
Design By Rana