সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:৫১ অপরাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
রাজাপুরে মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত কাউখালীতে অবৈধ ঝাটকা ও পঁচা মাছ বিক্রি! ৪ জেলেকে মোবাইল কোর্ট সাজা প্রদান করেন ভান্ডারিয়ায় ২৫ ও ২৬ এপ্রিল স্পেশালাইজড মেডিক্যাল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হবে ভান্ডারিয়ায় প্রাণিসম্পদ প্রদর্শনী মেলার উদ্বোধন ঝালকাঠিতে ট্রাক চাপায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৪ ঝালকাঠিতে ট্রাক-কার-অটোর সংঘর্ষ, নিহত ১২ বজ্রপাতে স্কুল ছাত্রের মৃত্যু ভান্ডারিয়া পৌরসভা পরিস্কার পরিচ্ছন্ন বিষয়ক মতবিনিময় সভা নির্বাচনি এলাকার খাজনা মওকুফের ঘোষণা দিলেন মহিউদ্দিন মহারাজ কাউখালীতে কীটনাশক পান করে কৃষকের আত্মহত্যা কাউখালীতে অল্পের জন্য প্রাণে রক্ষা পেল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কোয়ার্টারে থাকা একটি পরিবারের ৪ জন সদস্য ভান্ডারিয়ায় পাসপোর্ট নিয়ে ফেরা হলো না ঘরে, সড়ক দুর্ঘটনায় কলেজ ছাত্রের মৃত্যু বুয়েট নিয়ে সাবেক কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নেতা শাফায়েত হোসেন অভির কিছু কথোপকথন বীর মুক্তিযোদ্ধারা হলেন জাতীর শ্রেষ্ঠ সন্তান -মহিউদ্দিন মহারাজ এমপি কাউখালীতে বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপন কাউখালীতে মৎস্য সুফলভোগী জেলেদের মাঝে বকনা বাছুর বিতরন ভান্ডারিয়ায় বিহারী লালমিত্র পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের স্কাউটদের দীক্ষা অনুষ্ঠান ভান্ডারিয়ায় পিকআপে করে গরু চুরির সময় ৩ চোর আটক কাউখালী উপজেলা পরিসংখ্যান কার্যালয়ে জনবল সংকট থাকার কারণে জনগণ কাঙ্ক্ষিত সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে পিরোজপুরে স্ত্রী হত্যা মামলায় যাবজ্জীবন সাজা প্রাপ্ত স্বামী ১৪ বছর পর গ্রেপ্তার
স্বামী সংসার ফেলে দেবরের সঙ্গে উধাও গৃহবধূ

স্বামী সংসার ফেলে দেবরের সঙ্গে উধাও গৃহবধূ

স্বামীর দেওয়া সোনার গহনা ও টাকা নিয়ে তিন বছরের সন্তান রেখে খালাতো দেবরের সঙ্গে পালিয়ে গেছে এক গৃহবধূ।

গত ২২ ডিসেম্বর দুপুর ১টার দিকে শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলার চরশিমুলিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

স্ত্রীকে ফিরে পেতে সুমন দেবনাথ দৈনিক অধিকারকে বলেন, আমার দেওয়া স্বর্ণালঙ্কার ও নগদ সোয়া এক লাখ টাকা নিয়ে খালাতো ভাই জনি পোদ্দারের সঙ্গে পালিয়ে যায় আমার স্ত্রী দিপ্তী রানী। আমি আমার স্ত্রীকে ফিরে পেতে চাই। যিনি আমার স্ত্রীর সন্ধান দিতে পারবে তাকে এক লাখ টাকা পুরস্কৃত করা হবে।

এ ঘটনায় শনিবার (৪ জানুয়ারি) স্বামী সুমন দেবনাথ (২৯) জাজিরা থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

পালিয়ে যাওয়া দিপ্তী রানী দেবনাথ (২৫) উপজেলার চরশিমুলিয়া গ্রামের সুমন দেবনাথের স্ত্রী। আর তার প্রেমিক জনি পোদ্দার (২৭) নড়িয়া উপজেলার মসুরা গ্রামের নিখিল চন্দ্র পোদ্দারের ছেলে।

অভিযোগ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, মাদারীপুর সদর উপজেলার পেয়ারপুর গ্রামের প্রাণ কৃষ্ণ দাসের মেয়ে দিপ্তী রানীর সঙ্গে শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলার চরশিমুলিয়া গ্রামের মানিক দেবনাথের ছেলে সুমন দেবনাথের পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। বিয়ের পর পাঁচ বছর তাদের সংসার জীবন সুখেই কাটছিল। কিন্তু দুই বছর যাবত প্রেমিক জনি পোদ্দারের সঙ্গে দিপ্তী রানীর প্রথম বন্ধুত্ব হয়। পরে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

এরই ধারাবাহিকতায় গত ২২ ডিসেম্বর দুপুর ১টার দিকে স্বামী সুমন দেবনাথের দেওয়া স্বর্ণ ও টাকা নিয়ে তিন বছরের ছেলে শুভ দেবনাথকে রেখে প্রেমিক জনির সঙ্গে পালিয়ে যায় দিপ্তী রানী। তাকে বিভিন্ন জায়গায় খোঁজ করেও পাওয়া যায়নি। এ ঘটনায় শনিবার (৪ জানুয়ারি) স্বামী সুমন দেবনাথ জাজিরা থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

জাজিরা থানার এসআই ইকবাল হোসেন দৈনিক অধিকারকে বলেন, দিপ্তী রানী তার খালাতো দেবর জনি পোদ্দারের সঙ্গে পালিয়েছে। এ ঘটনায় তার স্বামী সুমন দেবনাথ থানায় একটি অভিযোগ করেছেন।

 

 

 

সুত্র দৈনিক অধিকার

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 pirojpursomoy.com
Design By Rana