সোমবার, ২৭ Jun ২০২২, ০৫:৫৭ অপরাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
সিসি টিভি ফুটেজে গরু চোর সনাক্ত চার চোর জেল হাজতে রোমাঞ্চকর ম্যাচে রাসেলকে হারাল বসুন্ধরা কিংস পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে কাউখালীতে আলোচনা সভা ও আনন্দ র‌্যালি ‘এই আনন্দের দিনে কারও প্রতি ঘৃণা নয়, কারও প্রতি বিদ্বেষ নয়’ পদ্মা সেতু উদ্বোধন: স্মারক ডাকটিকিট, স্যুভেনির শিট, উদ্বোধন খাম ও সিলমোহর প্রকাশ পিরোজপুর থেকে মহিউদ্দিন মহারাজের নেতৃত্বে ৭ টি লঞ্চে আ.লীগ ও জেপির প্রায় ২০ হাজার নেতা কর্মী পদ্মা সেতু উদ্ভোধনে রওয়ানা ভান্ডারিয়ায় দেশীয় অস্ত্র ও মাদকসহ আটক ২ ভান্ডারিয়ায় মুক্তিযোদ্ধা ফারুক হাওলাদার এর দ্বিতীয় মৃত্যু বার্ষিকী পালিত মঠবাড়িয়ায় মাদ্রাসা ছাত্রী ধর্ষণ চেষ্টার বিচারের দাবীতে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন সিলেটে পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী সমাবেশে মহারাজের নেতৃত্বে যাবেন ১৫ হাজার নেতাকর্মী কাউখালীতে জনগুরুত্বপূর্ণ রাস্তাটি চলাচলের অনপুযোগী॥ জন দূর্ভোগ চরমে ধর্ষণের পর আত্মগোপনে গিয়েও ধর্ষণ করতেন শামীম কাউখালীতে মেয়েকে উত্যাক্ত করার প্রতিবাদ করায় বাবাকে পিটিয়ে জখম ভান্ডারিয়ায় ছাত্রী ধর্ষণ, ধর্ষক শামীম উত্তরা থেকে গ্রেফতার নাজিরপুরে দুই ইউপি নির্বাচন নৌকার ভরাডুবি : স্বতন্ত্র প্রার্থীর বিজয় মাসিক আইন শৃঙ্খলা ও সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত ভান্ডারিয়ায় উপনির্বাচনে সদস্য পদে আব্দুর রহমান নির্বাচিত ভান্ডারিয়ায় ধর্ষক শামীমের গ্রেফতার ও বিচারের দাবীতে মানববন্ধন কাউখালী বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত
মানিকগঞ্জে দেবরের হাতে খুন হলো ভাবী-ভাতিজা

মানিকগঞ্জে দেবরের হাতে খুন হলো ভাবী-ভাতিজা

মানিকগঞ্জের সাটুরিয়ায় মা ও শিশু সন্তান খুনের রহস্য উম্মোচিত হয়েছে। হত্যার কথা শিকার করে দেবর সোলাইমান হোসেন ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

হত্যাকাণ্ডের শিকার পারভীন আক্তার দেবর সোলাইমান হোসেনকে বিয়ের জন্য চাপ দিচ্ছিল। ভাবীর এই আচরণ সহ্য করতে না পেরে ধারালো ছুড়ি দিয়ে হত্যা করে ভাবী পারভীন ও ভাতিজা আব্দুর নূরকে।
শুক্রবার সন্ধ্যায় মানিকগঞ্জ সিনিয়ন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলী আদালত ৯ এর বিচারক জান্নাতুল রাফিন সুলতানের কাছে মামলার একমাত্র আসামি সোলাইমান হোসেন ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি দেন। আসামি সোলাইমানকে রাতেই আদালত থেকে জেল হাজতে পাঠানো হয়। এই ঘটনায় নিহত পারভীনের মা মজিরন বেগম বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

মানিকগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার রিফাত রহমান শামীম এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানান ১৬৪ ধারা জবানবন্দিতে আসামী সোলাইমান হোসেন স্বীকারোক্তি করেছেন। স্বীকারোক্তি অনুয়ায়ী আসামি সোলাইমান হোসেনের সাথে তার মেঝ ভাই মজনুর স্ত্রী পারভীনের পরকীয়ার সম্পর্ক গড়ে ওঠে। গত তিন মাস আগে সোলাইমান মালয়েশিয়া থেকে পড়াশুনা করে দেশে আসে। ভাবী পারভীন সোলাইমানকে বিয়ের জন্য চাপ প্রয়োগ করে আসছিল। ঘটনার দিন ৮ জানুয়ারি রাত ১০টার দিকে সোলাইমান হোসেন ভাবী পারভীনের ঘরে ঢুকে। পারভীন আক্তার সোলাইমানকে বিয়ের জন্য চাপ প্রয়োগ করে। সোলায়মান বিয়েতে রাজি না হওয়ায় পারভীন আক্তার হুমকি দেন তার নিজের দুই ছেলে, স্বামীকে হত্যা করা হবে। এই নিয়ে দুই জনের মধ্যে কথাকাটি ও উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। সোলাইমান ঘরে থাকা ধারালো ছুরি দিয়ে ভাবীর গলায় ছুড়িকাঘাত করে। ওই সময় ভাতিজা আব্দুর নুর জেগে ওঠলে তাকে চাকু দিয়ে হত্যা করে সে। দুই জনের হত্যা নিশ্চিত করে রক্তমাখা চাকু ও তার পরিহিত কাপড় চোপড় ধুয়ে ফেলে সোলাইমান। এর পর নিজ ঘরে গিয়ে ঘুমিয়ে পড়েন।

উল্লেখ্য, বুধবার রাতে প্রবাসী মজনু মিয়ার স্ত্রী ও শিশু সন্তানকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হয়। বৃহস্প্রতিবার সকালে পুলিশ তাদের লাশ উদ্ধার করে।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন










© All rights reserved © 2019 pirojpursomoy.com
Design By Rana