সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ১২:২৭ অপরাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
ভান্ডারিয়ায় ২৫ ও ২৬ এপ্রিল স্পেশালাইজড মেডিক্যাল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হবে ভান্ডারিয়ায় প্রাণিসম্পদ প্রদর্শনী মেলার উদ্বোধন ঝালকাঠিতে ট্রাক চাপায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৪ ঝালকাঠিতে ট্রাক-কার-অটোর সংঘর্ষ, নিহত ১২ বজ্রপাতে স্কুল ছাত্রের মৃত্যু ভান্ডারিয়া পৌরসভা পরিস্কার পরিচ্ছন্ন বিষয়ক মতবিনিময় সভা নির্বাচনি এলাকার খাজনা মওকুফের ঘোষণা দিলেন মহিউদ্দিন মহারাজ কাউখালীতে কীটনাশক পান করে কৃষকের আত্মহত্যা কাউখালীতে অল্পের জন্য প্রাণে রক্ষা পেল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কোয়ার্টারে থাকা একটি পরিবারের ৪ জন সদস্য ভান্ডারিয়ায় পাসপোর্ট নিয়ে ফেরা হলো না ঘরে, সড়ক দুর্ঘটনায় কলেজ ছাত্রের মৃত্যু বুয়েট নিয়ে সাবেক কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নেতা শাফায়েত হোসেন অভির কিছু কথোপকথন বীর মুক্তিযোদ্ধারা হলেন জাতীর শ্রেষ্ঠ সন্তান -মহিউদ্দিন মহারাজ এমপি কাউখালীতে বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপন কাউখালীতে মৎস্য সুফলভোগী জেলেদের মাঝে বকনা বাছুর বিতরন ভান্ডারিয়ায় বিহারী লালমিত্র পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের স্কাউটদের দীক্ষা অনুষ্ঠান ভান্ডারিয়ায় পিকআপে করে গরু চুরির সময় ৩ চোর আটক কাউখালী উপজেলা পরিসংখ্যান কার্যালয়ে জনবল সংকট থাকার কারণে জনগণ কাঙ্ক্ষিত সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে পিরোজপুরে স্ত্রী হত্যা মামলায় যাবজ্জীবন সাজা প্রাপ্ত স্বামী ১৪ বছর পর গ্রেপ্তার পিরোজপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় আবারো ৩ জন নিহত পিরোজপুরের এক জেলের জালে ধরা পড়ল ২০ লাখ টাকার লাক্ষা মাছ
গর্ভকালীন মায়ের খাবার

গর্ভকালীন মায়ের খাবার

নারীর জীবনে গর্ভকালীন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। একজন সুস্থ মায়ের কাছ থেকে সঠিক পুষ্টি পেতে পারে গর্ভের অনাগত সন্তান। আর তাই গর্ভকালীন একজন মায়ের খাদ্যাভ্যাস হতে হবে অবশ্যই পুষ্টিকর এবং স্বাস্থ্যসম্মত। অনেকেই মায়ের খাবার নিয়ে দ্বিধাদ্বন্দ্বে ভোগেন। কেউ কেউ মনে করেন, মায়ের বেশি খাবার খাওয়া উচিৎ নয়। এতে গর্ভের সন্তানের ওজন বেশি হবে এবং প্রসবে জটিলতা হবে।

আবার অনেকেই মনে করেন, একজন মায়ের দুইজনের খাবার খাওয়া উচিৎ। যা মোটেও ঠিক নয়। এতে মায়ের মুটিয়ে যাওয়া ছাড়াও ডায়াবেটিস কিংবা হাইপারটেনশন এর ঝুঁকি থাকে। তাই গর্ভবতী মায়ের খাবার হতে হবে সুষম। এজন্য প্রতিদিনের খাবারে খাদ্যের সব কয়টি উপাদানের উপস্থিতি থাকতে হবে।

প্রোটিন: প্রোটিন গর্ভস্থ শিশুর কোষ ও মস্তিষ্কের সঠিক গঠনে সহায়তা করে। প্রতিদিন অন্তত: ৮০-১০০ গ্রাম প্রোটিন জাতীয় খাদ্য গ্রহণ করা উচিৎ। যেমন: মাছ, মাংস, দুধ, ডিম, বাদাম, ডাল ইত্যাদি।

কার্বোহাইড্রেট: শর্করাজাতীয় খাবার শরীরে শক্তি যোগায়। ভাত, রুটি, চিড়া, মুড়ি, চিনি, গুড়, ইত্যাদি খাবার থেকে শর্করা পাওয়া যেতে পারে। তবে অতিরিক্ত শর্করা এড়িয়ে চলা উত্তম।

ফ্যাট: চর্বিজাতীয় খাবার ভালো শক্তির উৎস। শরীরের স্নায়ুতন্ত্রের সঠিক গঠন নিশ্চিত করতে চর্বি জাতীয় খাবার অবশ্যই খেতে হবে। যেমন: তেল, ঘি, মাখন ইত্যাদি।

এছাড়া গর্ভকালীন ভিটামিন ও মিনারেলস সমৃদ্ধ খাবার অত্যন্ত জরুরি। ক্যালসিয়াম, আয়রন, ফলিক এসিড, জিংক ইত্যাদি মিনারেলস গর্ভস্থ শিশুর গঠনে ভূমিকা পালন করে। দুধ ও দুধজাতীয় খাবার, ছোট মাছ, মৌসুমি শাক-সবজি ও ফলমূল ইত্যাদি খাবার গর্ভস্থ শিশুর ভিটামিন ও মিনারেলস এর চাহিদা পূরণ করে।

ইত্তেফাক/এমআর

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 pirojpursomoy.com
Design By Rana