সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ০১:৫৩ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
রাষ্ট্রীয় সম্মান নিয়ে কাউখালীর বীর মুক্তিযোদ্ধা হাবিবুর রহমানের শেষ বিদায় কাউখালীতে ব্রীজ নির্মান কাজ ৫ বছরে শেষ না হওয়ায় জনগনের ভোগান্তি চরমে কাউখালীতে জাতীয় স্থানীয় সরকার দিবস উপলক্ষে শোভাযাত্রা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র উন্নত ও স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ে তোলার একটি অংশ–মহিউদ্দিন মহারাজ (এমপি) মায়ের লাশ বাড়িতে রেখে এসএসসি পরীক্ষার হলে দুই ভাই ভান্ডারিয়ায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত বীর মুক্তিযোদ্ধা শাহাবুদ্দিন শাহ বাবুল মারা গেছেন পিরোজপুরে প্রতারণা মামলায় এহ্সান গ্রুপের অফিস সহকারী নাজমুল গ্রেফতার কাউখালীতে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু কাউখালীতে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে সম্ভাব্য প্রার্থীদের ব্যাপক প্রচারনা ভান্ডারিয়া বিহারী লাল মিত্র পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া নাজিরপুরে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় ২ শিক্ষার্থী নিহত কাউখালীতে উপজেলা প্রশাসন অনাবাদি জমি আবাদে আনার উদ্যোগ গ্রহণ করেছে কাউখালীতে অবৈধ জাল দিয়ে মাছ ধরার অপরাধে জেলেকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত কাউখালীতে অগ্নিকাণ্ডে বসতবাড়ি পুড়ে ছাই হয়ে গেছে সংসদে ইমাম-মুয়াজ্জিনের সম্মানজনক ভাতা দাবি মহিউদ্দীন মহারাজের যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটি সদস্য হয়েছে মহিউদ্দীন মহারাজ পিরোজপুরে উজ্জ্বল হত্যার মামলার প্রধান আসামি গ্রেপ্তার পিস্তল ঠেকিয়ে শিক্ষককে হাতুরিপেটার অভিযোগ বেবী মালেঙ্গা খ্যাত কাউখালীর ক্রিকেটার সোহাগের স্বপ্ন ছাই হয়ে যাবে অর্থাভাবে
ঝালকাঠির রাজাপুরে চাঁদার টাকা না পেয়ে নির্মানাধীন কাজ বন্ধ করলেন যুবলীগ নেতা!

ঝালকাঠির রাজাপুরে চাঁদার টাকা না পেয়ে নির্মানাধীন কাজ বন্ধ করলেন যুবলীগ নেতা!

ঝালকাঠি প্রতিনিধি: ঝালকাঠির রাজাপুরে চাদার টাকা না পেয়ে নির্মান কাজ বন্ধ করে দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার মঠবাড়ি গ্রামের রিক্সা চালক নিজের পৌত্রিক ভূমিতে বসত ঘর নির্মান শুরু করলে স্থানীয় যুবলীগ নেতা চাঁদা দাবী করে। চাঁদার টাকা না পেয়ে নির্মান কাজ বন্ধ করতে আদালয়ের মাধ্যমে ১৪৪ ধারা জারী করে। মঠবাড়ি গ্রামের আলী আকব্বরের ছেলে রিক্সা চালক বাবুল জানান, পৌত্রিক জমিতে ৩০ বছর ধরে বসবাস করে আসছিলেন। ধার দেনা করে ও এনজিও থেকে কিস্তি তুলে থাকার জন্য একটি আধা পাকা ঘর তুলতে গেলেই বাধা হয়ে দাড়ায় ওয়ার্ড যুবলীগ সভাপতি বাহারুল হাওলাদার, স্থানীয় আলী আহম্মদ ও নুর হোসেন। পাকা ঘড় তুলতে হলে তাদের ৫০ হাজার টাকা চাদা দিতে হবে, না দিলে কাজ বন্ধ করে দিবে। তাদের টাকা না দেওয়ায় অনেক হুমকী দিয়েছেন। তাতেও কাজ বন্ধ না করায় আদালতের মাধ্যমে ঐ জমিতে নিষেধাজ্ঞা চেয়েছে। আমরা আদালতের কাছে শ্রদ্ধাশীল হয়ে আমাদের ঘরের নির্মান কাজ বন্ধ রেখেছি। তিনি আরও জানান বাহারুল কোন কাজ কর্ম করেনা। তার কাজই হলো কোথায় জামেলা পাকিয়ে দলীয় প্রভাব খাটিয়ে টাকা কামানো। দৃষ্যত তিনি কোন কাজই করেনা। আমাদের রেকর্ডীয় জমি থেকে তারা রাস্তা নিয়ে জামেলা করে। এ নিয়ে শালিস মিমাংশা চলছিল, এর মাঝেই তারা আদালত থেকে নিষেধাজ্ঞা এনেছে। অপর দিকে রাজাপুর উপজেলার মঠবাড়ি ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ড যুবলীগ সভাপতি বাহারুল হাওলাদার বলেন, আমি বা আমরা কেহ তাদের কাছে কোন চাঁদা চাইনি। আমরা ঐ জমির পাশ থেকে বের হওয়ার জন্য একটা রাস্তা চেয়েছে। রাস্তার জায়গা না দেওয়ায় আদালতের মাধ্যমে নিষেধাজ্ঞা চেয়েছি। যাতে শালিশ মিমাংসার মাধ্যমে রাস্তার জায়গা পেতে পারি।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 pirojpursomoy.com
Design By Rana