সোমবার, ২৭ Jun ২০২২, ১১:০৭ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
রোমাঞ্চকর ম্যাচে রাসেলকে হারাল বসুন্ধরা কিংস পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে কাউখালীতে আলোচনা সভা ও আনন্দ র‌্যালি ‘এই আনন্দের দিনে কারও প্রতি ঘৃণা নয়, কারও প্রতি বিদ্বেষ নয়’ পদ্মা সেতু উদ্বোধন: স্মারক ডাকটিকিট, স্যুভেনির শিট, উদ্বোধন খাম ও সিলমোহর প্রকাশ পিরোজপুর থেকে মহিউদ্দিন মহারাজের নেতৃত্বে ৭ টি লঞ্চে আ.লীগ ও জেপির প্রায় ২০ হাজার নেতা কর্মী পদ্মা সেতু উদ্ভোধনে রওয়ানা ভান্ডারিয়ায় দেশীয় অস্ত্র ও মাদকসহ আটক ২ ভান্ডারিয়ায় মুক্তিযোদ্ধা ফারুক হাওলাদার এর দ্বিতীয় মৃত্যু বার্ষিকী পালিত মঠবাড়িয়ায় মাদ্রাসা ছাত্রী ধর্ষণ চেষ্টার বিচারের দাবীতে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন সিলেটে পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী সমাবেশে মহারাজের নেতৃত্বে যাবেন ১৫ হাজার নেতাকর্মী কাউখালীতে জনগুরুত্বপূর্ণ রাস্তাটি চলাচলের অনপুযোগী॥ জন দূর্ভোগ চরমে ধর্ষণের পর আত্মগোপনে গিয়েও ধর্ষণ করতেন শামীম কাউখালীতে মেয়েকে উত্যাক্ত করার প্রতিবাদ করায় বাবাকে পিটিয়ে জখম ভান্ডারিয়ায় ছাত্রী ধর্ষণ, ধর্ষক শামীম উত্তরা থেকে গ্রেফতার নাজিরপুরে দুই ইউপি নির্বাচন নৌকার ভরাডুবি : স্বতন্ত্র প্রার্থীর বিজয় মাসিক আইন শৃঙ্খলা ও সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত ভান্ডারিয়ায় উপনির্বাচনে সদস্য পদে আব্দুর রহমান নির্বাচিত ভান্ডারিয়ায় ধর্ষক শামীমের গ্রেফতার ও বিচারের দাবীতে মানববন্ধন কাউখালী বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত ভান্ডারিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত আবু তালহার বাবার আকুতি
আখাউড়ায় ধর্ষণ চেষ্টার আসামীর  গাড়িবহর নিয়ে শোডাউন ও মিষ্টি বিতরণ

আখাউড়ায় ধর্ষণ চেষ্টার আসামীর  গাড়িবহর নিয়ে শোডাউন ও মিষ্টি বিতরণ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সংবাদদাতা

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় ধর্ষণ চেষ্টার আসামী গাড়িবহর নিয়ে শোডাউন ও মিষ্টি বিতরণ করেছেন।

এই শিশু ধর্ষণচেষ্টাকারী ব্যক্তি বয়সের অযুহাতে হাইকোর্ট থেকে আগাম জামিন নিয়ে এলাকায় এসে এমন চাঞ্চল্যকর অবস্থার সৃষ্টি করেছেন।

এতে পুরো এলাকাজুড়ে তাকে নিয়ে  সমালোচনার ঝড় বইছে। কত  বড় নির্লজ্জ ও কাণ্ডজ্ঞানহীন অমানুষ বা পশু তুল্য হলে এমন নেক্কারজনক ঘটনা ঘটাতে পারে এমনই আলোচনা চলছে এলাকার লোকজনের মধ্যে।

তার গলায় ছিল ফুলের মালা, আর পুরো প্রাইভেটকারের উপর ছিল  ফুল ছিটানো।১০-১২ টি মোটরসাইকেল ও কয়েকটি প্রাইভেটকার সহকারে দলবল নিয়ে এলাকায় সে এখন শোডাউন করছে। তাকে একনজরে দেখলে মনে হবে কোনো জনপ্রতিনিধি। হয়তো সে অনেকদিন পর এলাকায় এসেছে ।এ জন্য তার কর্মী সমর্থকরা আনন্দে মিষ্টি বিতরণ করে উল্লাস করছে।অথবা মনে হবে কেউ নতুন বউ নিয়ে আসছে শ্বশুরবাড়ি থেকে। বাস্তব ঘটনা হল, সে একজন  শিশু ধর্ষণচেষ্টাকারী।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়,ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলার দক্ষিণ ইউনিয়নের হিরাপুর গ্রামের মিয়া বাড়ির বাসিন্দা মো.মতিউর রহমান ওরফে মুক্তু মিয়া(৬৫) শিশু ধর্ষণচেষ্টা মামলার আসামী ছিলেন ।গত ৯ সেপ্টেম্বর হাইকোর্ট থেকে আগাম জামিন পায় সে।আগাম জামিন পেয়ে গত মঙ্গলবার বিকেলে আখাউড়ায় আসে ।তখন তার আইনজীবী ছেলে মিলনের নেতৃত্বে তার স্বজন ও সমর্থকরা ১০-১২টি মোটরসাইকেল ও কয়েকটি প্রাইভেটকার নিয়ে পুরো এলাকা জুড়ে শোডাউন দিয়ে মিষ্টি বিতরণ করে।গাড়ি থেকে নামার পর তাকে সোনা-রুপার পানি দিয়ে গোসল করিয়ে ফুলের মালা পরিয়ে ও ফুল ছিটিয়ে বরণ করে ঘরে তুলে নেন তার পরিবারের লোকজন।

এ ঘটনার কয়েকটি ছবি ও ভিডিও নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তীব্র নিন্দা ও সমালোচনার ঝড় বইছে।সচেতন মহল বলছে,‘বিচারাধীন ধর্ষণ মামলায় আগাম জামিন নিয়ে এসে এগুলো করা ঠিক কিনা।এতে সমাজে নেতিবাচক বার্তা ভেঙ্গে যাবে।অর্থ আর ক্ষমতার প্রভাবে যদি ধর্ষণ মামলার আসামীরা পার পেয়ে যায় তাহলে আইনের শাসন ও বিচারব্যবস্থার উপর জনগন আস্থা হারিয়ে ফেলবে।

জানা যায়,নির্যাতনের শিকার ৮ বছরের ঐ এতিম শিশুটি আর্থিক অসচ্ছলতার কারণে গত তিন-চার বছর ধরে মামার বাড়ি হীরাপুর গ্রামে থাকত। স্থানীয় একটি মাদ্রাসায় ২য় শ্রেণিতে পড়ত শিশুটি।গত ১৫ জুলাই সকালে মজা খাওয়ানোর লোভ দেখিয়ে শিশুটিকে একটি পরিত্যক্ত ঘরের বারান্দায় নিয়ে গিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করেন প্রতিবেশী ঐ মুক্তু মিয়া। এ সময় তার আর্তচিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে মুক্তু মিয়া পালিয়ে যায়। বিষয়টি এলাকার সাহেব সর্দারগনদের জানিয়ে বিচার চান শিশুটির মামা। তারা মীমাংসা করে দেবেন বলে আশ্বস্ত করেন এবং এ ব্যাপারে কোনো মামলা না করার পরামর্শ দেন। কিন্তু এক মাস পেরিয়ে গেলেও কোনো বিচার না পেয়ে গত ১৭ আগস্ট শিশুর মা মুক্তু মিয়াকে আসামি করে আখাউড়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

হীরাপুর গ্রামের বাসিন্দারা বলেন, ‘মুক্তু মিয়া জামিন পেয়ে এলাকায় এসে তার অ্যাডভোকেট ছেলে সহ অন্যান্য কিছু লোক কয়েকটা প্রাইভেট কার ও মোটরসাইকেল নিয়ে শোডাউন দিয়ে গলায় ফুলের মালা পরিয়ে ঐ ধর্ষনচেষ্টাকারীকে নিয়ে এলাকায় ঘুরে বেড়িয়েছেন। আমাদেরকে মিষ্টি খাওয়ার দাওয়াত ও দেন তারা। কিন্তু আমরা কেউ যাইনি। মুক্তু মিয়া যে ঘটনা ঘটিয়েছেন তার তীব্র নিন্দা জানাই আমরা । এত নিকৃষ্ট ঘটনা আমরা আগে কখনো শুনিনি। এর বিচার না হলে দেশে আইন বলে কিছু থাকবে না।’

নির্যাতিত শিশুর মা বলেন, ‘আসামি আগাম জামিন পেয়ে এসে মামলা তুলে নেয়ার জন্য  আমাদের হুমকিধামকি দিচ্ছে।এখন আমরা আতঙ্কের মাঝে দিন কাটাচ্ছি।আমি চাই আসামীর দৃষ্টান্তমূলক বিচার হোক।’

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মুক্তু মিয়ার ছেলে আইনজীবী মিলন মিয়া বলেন, ‘আমার বাবাকে ষড়যন্ত্র করে ফাঁসানোর জন্য মিথ্যা মামলা দিয়েছে। হাইকোর্ট আমার বাবার বয়স বিবেচনা করে জামিন দিয়েছে। ’ অভিযুক্ত ধর্ষণ মামলার আসামী মুক্তু মিয়া বলেন, ‘আমার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ সত্য নয়।’

এ বিষয়ে আখাউড়া থানার ওসি রসুল আহমেদ নিজামী বলেন, ‘মামলাটি বর্তমানে তদন্তাধীন আছে।’ তদন্ত সাপেক্ষে তাকে বিচারের আওতায় আনা হবে।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন










© All rights reserved © 2019 pirojpursomoy.com
Design By Rana