মঙ্গলবার, ১১ মে ২০২১, ০৪:৪৭ অপরাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
ঈদে বাড়ি ফেরার পথে পদ্মার চরে সন্তান জন্ম দিলেন বরিশালের সুমা ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তাণ্ডবের ঘটনায় সরাইল থানার ওসির বদলি মঠবাড়িয়ার ওসি সাহেব পারবেন তো কথা রাখতে ! মঠবাড়িয়ায় থানায় নবাগত ওসির যোগদান মঠবাড়ীয়ায় প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে দুস্থ পরিবারের মাঝে নগদ অর্থ বিতরণ মঠবড়িয়ায় বেগম খালেদা জিয়ার রোগ মুক্তি কামনায় দোয়া ও ইফতার মাহফিল রাজাপুরে দুঃস্থদের মাঝে ঈদবস্ত্র বিতরন করেছেন ইঞ্জিনিয়ার আবুল কাসেম সীমান্ত ভান্ডারিয়ায় ঈদের কেনাকাটায় মানা হচ্ছে না স্বাস্থ্যবিধি ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ট্রাকচাপায় সিএনজি আরোহি  নিহত আহত-৩ মঠবাড়িয়া থানার ওসি মাসুদুজ্জামানের বিদায়ী সংবর্ধনা মঠবাড়িয়ায় রেড ক্রিসেন্ট‘র উদ্যোগে নগদ অর্থ ও বীজ বিতরণ ফাঁকা বাড়িতে ইফতার দিতে এসে রোজাদার গৃহবধূকে ধর্ষণ লালমাইয়ে প্রবাসীর স্ত্রী নিখোঁজ ভান্ডারিয়ায় নবাগত ইউএনও’র সাথে সাংবাদিকদের মতবিনিময় মঠবাড়িয়ায় ব্যাংকের উদ্যোগে রমজানের উপহার সামগ্রী বিতরণ ২শ টাকার বাজার করে ৩শ টাকার হিসাব দেওয়ায় শরণখোলায় জামাইকে ত্যাজ্যপুত্র করলো শশুর! পিরোজপুরে টাউট রফিকুল ইসলামের কাছে এক অসহায় পরিবার জিম্মি ও পালিয়ে বেড়াচ্ছেন বংশা‌লে রিকশাওয়া‌লা‌কে নির্যাতনকারী ব্য‌ক্তি‌কে আটক কর‌লো পু‌লিশ মঠবাড়িয়ায় দূর্বৃত্তের দেয়া চেতনা নাশকে ৬ জন অচেতন ‘ সুরক্ষা ও নিরাপত্তা সাংবাদিকদের প্রত্যাশা’
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সহিংসতার মামলায় হেফাজত কর্মীসহ গ্রেপ্তার ৬০

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সহিংসতার মামলায় হেফাজত কর্মীসহ গ্রেপ্তার ৬০

 ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সংবাদদাতাঃ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় গত ২৬ থেকে ২৮ মার্চ পর্যন্ত হামলা, ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ ও সহিংসতার ঘটনার সাথে জড়িত হেফাজতে ইসলামের কর্মী-সমর্থকসহ ৬০ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল সোমবার পুলিশের বিশেষ অভিযানে তাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়। তাঁদের মধ্যে বিএনপি, জামায়াত ও হেফাজতের ১৬ জন গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি আছেন। এসব ঘটনায় দায়ের করা মামলায় এখন পর্যন্ত ১৬৮ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এর মধ্যে হেফাজতের ১২৮ জন, বিএনপির ৩৭ জন ও জামায়াত-শিবিরের ৩ জন আছেন। গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের মধ্যে রয়েছেন( ১৬ জনের মধ্যে) নবীনগর উপজেলা বিএনপির সদস্য সফিউল্লাহ মিয়া (৪০), ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক আহ্বায়ক শিমরাইলকান্দির বাসিন্দা কামরুল হাসান (২৮), ছাত্রদলের সদস্য শহরের বণিকপাড়ার বাসিন্দা মো. পলাশ (২৬), হেফাজতের সমর্থক পৌর এলাকার ফুল মিয়া (৩৩), নয়নপুর এলাকার রফিকুল ইসলাম (৩০), পুনিয়াউট উত্তরপাড়া মো. মেরাজ (১৯) ও মো. আশিক (২০), পুনিয়াউটের জুনাইদ (২১), পশ্চিম মেড্ডার দুলাল মিয়া (৩৯), সদর উপজেলার বিহাইর এলাকার শাহজাহান মিয়া (৫১), সোহাতা গ্রামের রাকিবুল হাসান (২৩), বিরাসার দক্ষিণপাড়ার মো. শামীম (৩০), মো. সুজন (২২) ও রবিন মিয়া (১৮), নাসিরনগর উপজেলার ধরমণ্ডলের দুলাল মিয়া (২৯) ও শহরের মধ্যপাড়ার বাসিন্দা জামায়াত কর্মী লিয়াকত আলী (৩৫)। তাঁদের মধ্যে শাহজাহান জেলা পুলিশ লাইনসে আক্রমণ করেছিল। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় গত ২৬ থেকে ২৮ মার্চ পর্যন্ত হামলা, ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ ও সহিংসতার ঘটনা ঘটে। জেলাজুড়েই হেফাজতের কর্মী-সমর্থকেরা ব্যাপক ধ্বংসযজ্ঞ চালান। জেলার বিভিন্ন সরকারি–বেসরকারি স্থাপনায় ব্যাপক ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করা হয়। এসব ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৪৯টি মামলা হয়েছে। এসব মামলায় ৩৮ হাজারের বেশি আসামি করা হয়েছে। এর মধ্যে মাত্র ২৮৮ জনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। বাকি সবাই অজ্ঞাতনামা দুষ্কৃতকারী। ৪৯টির মধ্যে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানায় ৪৩টি, আশুগঞ্জ থানায় ৩টি, সরাইল থানায় ২টি ও আখাউড়া রেলওয়ে থানায় ১টি মামলা হয়। সহিংসতার ঘটনায় পুলিশ স্থিরচিত্র ও ভিডিও ফুটেজ পর্যালোচনা করে অভিযুক্ত ব্যক্তিদের শনাক্ত করা শুরু করেছে। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ ও প্রশাসন) মো. রইছ উদ্দিন প্রথম আলোকে বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় পুলিশের বিশেষ অভিযানে ৬০ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাঁদের মধ্যে বিএনপি, জামায়াত ও হেফাজতের কর্মী-সমর্থকদের গুরুত্বপূর্ণ ১৬ জন আছেন।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন










© All rights reserved © 2019 pirojpursomoy.com
Design By Rana