রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ০৬:১০ অপরাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
রাষ্ট্রীয় সম্মান নিয়ে কাউখালীর বীর মুক্তিযোদ্ধা হাবিবুর রহমানের শেষ বিদায় কাউখালীতে ব্রীজ নির্মান কাজ ৫ বছরে শেষ না হওয়ায় জনগনের ভোগান্তি চরমে কাউখালীতে জাতীয় স্থানীয় সরকার দিবস উপলক্ষে শোভাযাত্রা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র উন্নত ও স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ে তোলার একটি অংশ–মহিউদ্দিন মহারাজ (এমপি) মায়ের লাশ বাড়িতে রেখে এসএসসি পরীক্ষার হলে দুই ভাই ভান্ডারিয়ায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত বীর মুক্তিযোদ্ধা শাহাবুদ্দিন শাহ বাবুল মারা গেছেন পিরোজপুরে প্রতারণা মামলায় এহ্সান গ্রুপের অফিস সহকারী নাজমুল গ্রেফতার কাউখালীতে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু কাউখালীতে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে সম্ভাব্য প্রার্থীদের ব্যাপক প্রচারনা ভান্ডারিয়া বিহারী লাল মিত্র পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া নাজিরপুরে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় ২ শিক্ষার্থী নিহত কাউখালীতে উপজেলা প্রশাসন অনাবাদি জমি আবাদে আনার উদ্যোগ গ্রহণ করেছে কাউখালীতে অবৈধ জাল দিয়ে মাছ ধরার অপরাধে জেলেকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত কাউখালীতে অগ্নিকাণ্ডে বসতবাড়ি পুড়ে ছাই হয়ে গেছে সংসদে ইমাম-মুয়াজ্জিনের সম্মানজনক ভাতা দাবি মহিউদ্দীন মহারাজের যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটি সদস্য হয়েছে মহিউদ্দীন মহারাজ পিরোজপুরে উজ্জ্বল হত্যার মামলার প্রধান আসামি গ্রেপ্তার পিস্তল ঠেকিয়ে শিক্ষককে হাতুরিপেটার অভিযোগ বেবী মালেঙ্গা খ্যাত কাউখালীর ক্রিকেটার সোহাগের স্বপ্ন ছাই হয়ে যাবে অর্থাভাবে
লকডাউনে মুভমেন্ট পাস ছাড়াই লোকজন রাস্তায়!

লকডাউনে মুভমেন্ট পাস ছাড়াই লোকজন রাস্তায়!

লকডাউনে জরুরি প্রয়োজনে চলাচলের জন্য মুভমেন্ট পাস চালু করেছে পুলিশ। মুভমেন্ট পাসের অ্যাপসটি উদ্বোধনের পর থেকেই আবেদনের হিড়িক পড়ে। পুলিশ সদর দপ্তর সূত্র জানা গেছে, গতকাল সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টা পর্যন্ত ৬ লাখ মানুষ অ্যাপটিতে আবেদন করেছেন। এরমধ্যে রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করতে পেরেছেন ৬০ হাজার মানুষ। এই সময় পর্যন্ত ৩০ হাজার পাস ইস্যু করা হয়েছে। এর আগে উদ্বোধনের প্রথম ঘণ্টায় ১ লাখ ২৫ হাজার মানুষ মুভমেন্ট পাসের জন্য আবেদন করেন। তারপর থেকে প্রতি ঘণ্টায় ১৫ হাজার মানুষ আবেদন করছিলেন। মুভমেন্ট পাসের আবেদনের চাপে এক পর্যায়ে সার্ভার জটিলতাও শুরু হয়।

স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন উঠে, এত মানুষ যদি মুভমেন্ট পাস নিয়ে সড়কে নামে তাহলে লকডাউন বাস্তবায়ন হবে কীভাবে। সর্বাত্মক লকডাউনে যেখানে জরুরি সেবা ছাড়া সবকিছু বন্ধ রাখা হয়েছে সেখানে এত মানুষ মুভমেন্ট পাস নিয়ে কি করবে? অনেকেই সুনির্দিষ্ট কারণ দেখিয়ে মুভমেন্ট পাস নিয়ে বিনা প্রয়োজনে বাইরে বের হতে পারেন, এমন আশংকাও ছিল।

কিন্তু বাস্তবতা দেখা গেলো আরও ভয়াবহ। বুধবার বিকেলে সরেজমিনে রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে ঘুরে দেখা যায় রাস্তায় চলাচলকারী অনেকের কাছেই নেই মুভমেন্ট পাস। ইত্তেফাক মোড়ের সামনেই গুলিস্তান এবং যাত্রাবাড়ি থেকে মতিঝিলগামী রাস্তায় বসানো হয়েছে পুলিশের চেকপোস্ট। সেখানে কর্তব্যরত পুলিশ সদস্যরা রিক্সা-মোটরসাইকেল-গাড়ি থামিয়ে সবাইকে জিজ্ঞাসাবাদ করছেন। অনেকেই দেখাতে পারছেন না মুভমেন্ট পাস। এক মোটরসাইকেল চালক পাস না দেখাতে পারায় তার পথরোধ করে রাখে পুলিশ। পরবর্তীতে ঔষধ কিনতে যাচ্ছেন বলে অনুনয়-বিনয় করলে এক পর্যায়ে পুলিশ তাকে ছেড়ে দেয়। ওই একই চেকপোস্টে আটকানো হয় রিক্সাযাত্রী এক নারীকে। তিনিও মুভমেন্ট পাস দেখাতে পারেন নি। ফকিরাপুলে জরুরি কাজে ব্যাংকে যাচ্ছেন বলে তিনি যাওয়ার অনুমতি পান।

মতিঝিলে এবং আরামবাগে অনেক পথচারীর কাছে মুভপেন্ট পাস আছে কিনা জানতে চাইলে কারো কাছেই সদুত্তর পাওয়া যায়নি। ফকিরাপুলে পথচারী মোহাম্মদ রফিকের সাথে কথা হয়। কেন ঘর থেকে বের হয়েছেন জানতে চাইলে তিনি উল্টো প্রশ্ন করেন, কতক্ষণ ঘরে থাকা যায়? মুভপেন্ট পাস আছে কিনা জিজ্ঞেস করলে তিনি জানান, তিনি এরকম কোন কিছুর নাম শুনেন নি।

তবে মতিঝিলে দুপুর থেকে দায়িত্বপালনকারী ট্র্যাকফিক পুলিশ সদস্য সুলতান বলেন, ‘লোকজন রাস্তাঘাটে প্রায় নেই বললেই চলে৷ মোটরসাইকেলেও একজনের বেশি যাত্রী চলাচল করছেন না।’ এত অল্পসংখ্যক মানুষের জন্য মুভমেন্ট পাস দেখার প্রয়োজন নেই বলেও মনে করেন তিনি।

 

সুত্র মানবজমিন

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 pirojpursomoy.com
Design By Rana